সাতকানিয়ায় শিশু ধর্ষক র‌্যাবের হাতে গ্রেফতার

মো. ইউসুফ (৪৭)।
CPLUSTV
CTG NEWS
CPLUSTV
শেয়ার করুন

সাতকানিয়া প্রতিনিধি: চট্টগ্রামের সাতকানিয়া উপজেলার খাঘরিয়া ইউনিয়নে ৭ বছরের শিশু ধর্ষণ মামলার আলোচিত পলাতক আসামী মো. ইউসুফ (৪৭) কে আটক করেছে র‍্যাব-৭।

এ বিষয়ে সাতকানিয়া থানায় একটি ধর্ষণ মামলা হয়। ধর্ষণের ঘটনা এলাকায় জানাজানি হলে আসামী এলাকা ছেড়ে আত্মগোপনে চলে যায়।

রবিবার (১১ ডিসেম্বর ) দিবাগত রাত ৩টায় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের রামপুর এলাকা র‍্যাব-৭ ক্যাম্পের বিপরীত পাশে বিশেষ অভিযান চালিয়ে উক্ত ধর্ষককে গ্রেফতার করা হয়।

আসামী মোঃ ইউসুফ সাতকানিয়া উপজেলার গণিপাড়া এলাকার মৃত সোনা মিয়ার ছেলে।

র‍্যাব সূত্রে জানা যায়, সাত বছর বয়সী ওই শিশু মাদ্রাসায় প্রথম শ্রেনীতে পড়ুয়া। প্রতিদিনের মত গত ৬ ডিসেম্বর মাদ্রাসায় যায় এবং ঐদিন দুপুরে মাদ্রাসা থেকে ফিরে বাড়ির সামনে আসলে প্রতিবেশী মো. ইউসুফ শিশুটিকে মাদ্রাসার ব্যাগ বাসায় রেখে তার কাছে আসতে বলে। ইউসুফের কথামতো শিশুটি বাসায় ব্যাগ রেখে তার কাছে যায়। তখন ইউসুফ তাকে আচার, চকলেট এবং টাকাসহ বিভিন্ন জিনিস দিবে বলে ফুসলিয়ে তার বাড়ীর পাশে শঙ্খ নদীর ধারে একটি ঝোপের ভিতর নিয়ে যায়। এসময় শিশুটি চিৎকার করলে ইউসুফ তার মুখ চেপে ধরে এবং চিৎকার করলে একদম মেরে ফেলবো বলে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে।

র‌্যাবের সিনিয়র সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) মো. নূরুল আবছার বলেন, শিশুটির মা গত ৭ ডিসেম্বর সাতকানিয়া থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেন। এরপর আমরা গোয়ান্দা নজরদারি ও ছায়াতদন্ত শুরু করি। ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের রামপুর এলাকায় আমাদের ক্যাম্পের বিপরীত পাশে অভিযান চালিয়ে তাকে আটক করি। সে ধর্ষণের বিষয়টি স্বীকার করে। পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা নিতে তাকে সাতকানিয়া থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

সাতকানিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত অফিসার ইনচার্জ  আব্দুল হান্নান বলেন, আসামী কে যথাযথ পুলিশ স্কটের মাধ্যমে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।