মহেশখালীতে স্কুলে জীবিত গেলেও শিশুটি লাশ হয়ে ফিরলোঃ জড়িত সন্দেহ আটক ২

মাহিয়া
CPLUSTV
CTG NEWS
CPLUSTV
শেয়ার করুন

মহেশখালী প্রতিনিধি: মহেশখালী উপজেলার মাতারবাড়ী হতে অপহরণ শিশু মাহিয়ার লাশ পেকুয়া উপজেলার উজানটিয়া ইউনিয়নের ডউয়্যাখালী এলাকা থেকে উদ্ধার করেছে পেকুয়া থানা পুলিশ।

শনিবার (৩ডিসেম্বর) বিকাল ৩ টায় উজানটিয়া ডউয়্যাখালী মাছের ঘেরে স্থানীয় জেলেরা শিশু মাহিয়ার লাশ ভাসতে দেখে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানকে খবর দেয়।

পরে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান তোফাজ্জল করিম পেকুয়া থানা পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে (৬) বছর বয়সি একটি শিশু কন্যার লাশ উদ্ধার করে বলে নিশ্চিত করেন।

মাহিয়া মহেশখালী উপজেলার মাতারবাড়ী ইউনিয়নের দক্ষিণ সাইরার ডেইল এলাকার আয়াত উল্লাহর কন্যা সন্তান।

নিহত মাহিয়ার পিতা আয়াতুল্লাহ জানান, তার কাছ থেকে একজনে মোবাইলে মেয়ে ফেরত  দিবে বলে ৫ লাখ টাকা চাঁদাদাবি করে আসছিল। সেই সূত্র ধরে বিষয়টি তিনি পুলিশকে অবহিত করে। পুলিশ মোবাইল টেকিং এর মাধ্যমে সিকদার পাড়া থেকে জড়িত সন্দেহে নারী-পুরুষসহ দুইজনকে জিজ্ঞাসবাদের জন্য মাতারবাড়ী পুলিশ ফাঁড়ীর ইনচার্জ এস আই হাসানের নেতৃত্বে পুলিশের একটি টিম অভিযান চালিয়ে করেছে। আটকের এক দিন পার হলে শিশুটির লাশও উদ্ধার হয়েছে।

জানা যায়, উপজেলার মাতারবাড়ী সাইরাডেইল গ্রামের আয়াত উল্লাহ’র  কিশোরী কন্যা মাহিয়া বাড়ীর পাশের সাইরাডেইল সরকারী প্রাইমারী স্কুলে নিয়মিত একজন ছাত্রী। প্রতিদিনের মতো গত ৩০ নভেম্বর বুধবার সকালে স্কুলে গিয়ে বিকাল পর্যন্ত বাড়ীতে ফিরে না আসায় মা-বাবা সহ আত্বীয় স্বজনরা বিভিন্ন স্থানে খোঁজ নিয়ে সন্ধান না পেয়ে হতাশ হয়ে যায়।পরদিন কিশোরীর পিতা মহেশখালী থানায় একটি জিড়ি করেন। এর সূত্র ধরে পুলিশ  সম্ভাব্য স্থানে তল্লাশী। এ অবস্থায় শনিবার বিকালে পার্শ্ববর্তী উপজেলা পেকুয়ার উজানটিয়া ডউয়্যাখালী একটি চিংড়ি ঘেরে কিশোরীর সন্ধান মিলে। সন্ধান মিললে ও জীবিত উদ্ধার হয়নি। উদ্ধার হয়েছে ক্ষত বিক্ষত লাশ। এ সংবাদ এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে পুরো মাতারবাড়ীতে চলছে শোকের মাতম।

মাতারবাড়ী পুলিশ ফাঁড়ীর ইনর্চাজ মোহাম্মদ হাসান পেকুয়া থানা কর্তৃক শিশুটির ক্ষতবিক্ষত লাশ উদ্ধারের বিষয়টি নিশ্চিত করেন।