ব্রাজিলের হারকে কেন্দ্র করে বাকবিতণ্ডা

ছবি: সংগৃহীত
CPLUSTV
CTG NEWS
CPLUSTV
শেয়ার করুন

সিপ্লাস ডেস্ক: বিশ্বকাপ ফুটবল খেলায় ব্রাজিলের হারকে কেন্দ্র করে বাকবিতণ্ডার ঘটনায় ছুরিকাঘাতে পাদুকা শ্রমিক মো. হাসান মিয়া (২০) খুন হয়েছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছে আরও একজন।

শুক্রবার রাত ১২টার দিকে সাভারের ডগড়মোরা স্কুলের সামনে ব্রাজিলের খেলা শেষে এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে।

শনিবার সকালে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন সাভার মডেল থানার এসআই সুদীপ কুমার গোপ।

হাসান কিশোরগঞ্জ জেলার বাজিতপুর থানার কৈলাক গ্রামের সিদ্দিকুর রহমানের ছেলে। তিনি সাভারের ডগড়মোরা এলাকায় ভাড়া বাসায় থেকে একটি জুতার কারখানায় চাকরি করতেন বলে জানা গেছে। তবে এ ঘটনায় আহত অপর যুবক এবং ঘাতকের পরিচয় পাওয়া যায়নি।

পুলিশ জানায়, ব্রাজিলের খেলা শেষে হারজিত নিয়ে বাকবিতণ্ডা শুরু হয়। এক পর্যায়ে হাসানকে ছুরিকাঘাত করে ব্রাজিল সমর্থন করা ক্ষিপ্ত এক দর্শক। এ সময় হাসানের বন্ধু এগিয়ে গেলে তাকেও ছুরিকাঘাত করা করে পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় স্থানীয়রা আহত দুই জনকে উদ্ধার করে সাভারের এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক হাসানকে মৃত ঘোষণা করেন।

এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক জানান, রাত ১২টা ৪৫ মিনিটে তাদের হাসাপাতালে আনা হয় হাসানকে। তার কোমড়ে দুইটি গভীর ক্ষতের চিহ্ন রয়েছে। হাসপাতালে তার ঠিকানা ব্যবহার করা হয়েছে সাভারের ডগড়মোরা এলাকা। তার সঙ্গে কয়েকজন বন্ধু এসেছিল।

প্রত্যক্ষদর্শী নৈশপ্রহরী ফুল মিয়া বলেন, শুক্রবার রাতে খাদিজ স্টোর নামে চায়ের দোকানে খেলা দেখছিল সবাই। রাতে ১২টার দিকে খেলা শেষ হওয়ার পর হঠাৎ করে মারামারি লাগে। এ সময় মুরুব্বিরা তাদেরকে ছাড়িয়ে দিলে জুতার কারখানার গলির ভেতরে নিয়ে ব্রাজিলের সাপোর্টার হাসানকে ছুরিকাঘাত করা হয়। যারা মেরেছে তাদের সবাই ছোটো ছোটো ছেলে। তাদের কাউকে আমি চিনি না।

এসআই সুদীপ কুমার গোপ বলেন, খেলায় হেরে যাওয়াকে কেন্দ্র করে ছুরিকাঘাতের ঘটনায় একজন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় হত্যাকারীকে গ্রেফতারে অভিযান চালানো হচ্ছে। খুব শিগগিরই হত্যাকারীকে গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনা হবে।