বিটুমিন আমদানিতে ১৫ শতাংশ ভ্যাট আদায় শুরু

বিটুমিন আমদানিতে ১৫ শতাংশ মূল্য সংযোজন কর (ভ্যাট) আদায় শুরু করেছে চট্টগ্রাম কাস্টম হাউস
CPLUSTV
CTG NEWS
CPLUSTV
শেয়ার করুন

নিজস্ব প্রতিবেদক: চলতি বছরের ২৮ জুন জারি করা জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) প্রজ্ঞাপন অনুযায়ী বাণিজ্যিকভাবে বিটুমিন আমদানিতে ১৫ শতাংশ মূল্য সংযোজন কর (ভ্যাট) আদায় শুরু করেছে চট্টগ্রাম কাস্টম হাউস।

২৯ জুলাই থেকে বিটুমিন আমদানিতে ভ্যাট কার্যকরের কথা থাকলেও এনবিআরের অ্যাসাইকুডা ওয়ার্ল্ড সিস্টেমে কারিগরি ত্রুটির কারণে সেটি কার্যকর করা যায়নি।

বিষয়টি গত জুলাই মাসের শেষ সপ্তাহে কাস্টমসের নজরে এলে সিস্টেমে বিটুমিন আমদানির শুল্কায়নে ভ্যাটের বিষয়টি ইনপুট দেওয়া হয়।

কাস্টম হাউস সূত্রে জানা গেছে, গত ২৯ জুন থেকে এ পর্যন্ত তিন আমদানিকারকের ৭টি বিটুমিনের চালান চট্টগ্রাম বন্দর থেকে ছাড় হয়েছে; যেগুলোতে ১৫ শতাংশ ভ্যাট আদায় হয়নি। প্রতিষ্ঠানগুলো হচ্ছে- কামাল অ্যান্ড ব্রাদার্স, ঢাকা কনক্রিট এবং মেসার্স দীন অ্যান্ড কোম্পানি। তাদের দাখিল করা বিল অব এন্ট্রি অনুযায়ী ১৫ শতাংশ ভ্যাট সরকারের প্রাপ্য। ইতোমধ্যে তাদের ভ্যাট পরিশোধের নোটিশ দেওয়া হয়েছে এবং একটি প্রতিষ্ঠান ৪৩ লাখ টাকা ভ্যাট পরিশোধও করেছে।

চট্টগ্রাম কাস্টমসের সংশ্লিষ্ট বিভাগের (গ্রুপ ২) দায়িত্বে থাকা উপ-কমিশনার রোকশানা খাতুন এ প্রসঙ্গে বলেন, অ্যাসাইকুডা ওয়ার্ল্ড সিস্টেমে কারিগরি ত্রুটির কারণে বিটুমিন আমদানিতে সংশোধিত এসআরও অনুযায়ী ভ্যাটের হার সংযুক্ত হয়নি। জুলাইয়ের শেষদিকে প্রজ্ঞাপনের তথ্য সিস্টেমে হালনাগাদ করার পর ৭ চালানের বিপরীতে ভ্যাট পরিশোধের নোটিশ দেওয়া হয়েছে। নোটিশ পেয়ে এক আমদানিকারক এরই মধ্যে প্রায় ৪৩ লাখ টাকা ভ্যাট পরিশোধ করেছেন। নোটিশ প্রাপ্ত বাকি দুই আমদানিকারকও শুনানির পর ভ্যাট পরিশোধ করবেন। এক্ষেত্রে ভ্যাট অনাদায়ী থাকার সুযোগ নেই।

জানা যায়, ২০২২ সালের ২৮ জুন জাতীয় রাজস্ব বোর্ড বাল্ক ও ড্রামে বিটুমিন আমদানি পর্যায়ে ১৫ শতাংশ ভ্যাট যুক্ত করে সংশোধিত এসআরও জারি করে। যা পরদিন ২৯ জুন থেকে কার্যকর করা হয়। কিন্তু জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের কেন্দ্রীয় শুল্কায়ন মাধ্যম অ্যাসাইকুডা ওয়ার্ল্ড সিস্টেমে কারিগরি জটিলতার কারণে সংযোজিত ১৫ শতাংশ ভ্যাট প্রদর্শিত না হওয়ায় ভ্যাট আদায় ছাড়াই শুল্কায়ন ও খালাস করা হয় তিন আমদানিকারকের ৭টি চালান। গত জুলাইয়ের শেষ সপ্তাহে অ্যাসাইকুডা ওয়ার্ল্ড সিস্টেমে বিটুমিনের এইচএস কোডের বিপরীতে সংশোধিত এসআরও’র ১৫ শতাংশ ভ্যাট যুক্ত না হওয়ার বিষয়টা নজরে আসে কাস্টমসের। এরপর জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের সঙ্গে চট্টগ্রাম কাস্টম হাউস কর্তৃপক্ষ যোগাযোগ করলে দ্রুতগতিতে সিস্টেমে সংশোধিত এসআরও অনুযায়ী ভ্যাটের হার যুক্ত করা হয়।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে কাস্টমসের এক কর্মকর্তা বলেন, এসআরও অনুযায়ী বিটুমিন আমদানিতে এখন ১৫ শতাংশ ভ্যাট আদায় বাধ্যতামূলক। কোনো আমদানিকারক প্রতিষ্ঠান যদি ২৯ জুনের পর কাস্টমস হাউসে বিল অব এন্ট্রি দাখিল করেন তা হলে ১৫ শতাংশ ভ্যাট প্রযোজ্য হবে। ভ্যাট পরিশোধ না করা পর্যন্ত তাদের অন্য চালান যাতে অ্যাসেসমেন্ট না হয় সেই বিষয়ে মৌখিক নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে: ফলে ভ্যাট বকেয়া রাখার কোনো সুযোগ নেই।