‘জুন ও সেপ্টেম্বরের মধ্যে পাঁচ সিটির ভোট’

ছবি: সংগৃহীত
CPLUSTV
CTG NEWS
CPLUSTV
শেয়ার করুন

সিপ্লাস ডেস্ক: চলতি বছরের জুনের মধ্যে মেয়াদোত্তীর্ণ দুটি ও সেপ্টেম্বরের মধ্যে তিন সিটি করপোরেশনের ভোট হবে বলে জানিয়েছেন নির্বাচন কমিশনার (ইসি) মো. আলমগীর। তবে এসব ভোটের এখনো দিনক্ষণ চূড়ান্ত করা হয়নি বলেও জানান তিনি।

রাজধানীর আগারগাঁওয়ে নির্বাচন ভবনে রোববার (৫ মার্চ) সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ তথ্য জানান। ওই সময় ময়মনসিংহের ভোটের ক্ষণগণনা ডিসেম্বরে শুরু হওয়ায় এই সিটি ভোট নিয়ে আপাতত পরিকল্পনা নেই বলেও জানান এই ইসি।

আগামী নভেম্বরের মধ্যেই গাজীপুর, রাজশাহী, খুলনা, সিলেট ও বরিশাল সিটি করপোরেশনের মেয়াদ শেষ হচ্ছে। মেয়াদ শেষ হওয়ার ৬ মাসের মধ্যেই সিটি নির্বাচনের বাধ্যবাধকতা রয়েছে।

মো. আলমগীর বলেন, ‘আইন অনুযায়ী সিটি করপোরেশনের মেয়াদ শেষ হওয়ার ১৮০ দিন (৬ মাস) আগেই নির্বাচন করতে হয়। তবে ইসি ইচ্ছে করলে ৬ মাস শেষে, মাঝামাঝি অথবা আগেও করা যায়। যেহেতু আমাদের জাতীয় নির্বাচন আছে এ বছরের ডিসেম্বরের শেষে অথবা জানুয়ারির প্রথম সপ্তাহে সেজন্য আমাদের চেষ্টা থাকবে এই সিটি করপোরেশনের নির্বাচন শেষের দিকে না করে প্রথম দিকেই করা।’

চার সিটির ভোট এক দিনে হবে কি না- এমন প্রশ্নের জবাবে এই কমিশনার বলেন, ‘এক দিনে হবে না। ছয়টা সিটি আছে। এর মধ্যে ময়মনসিংহ সিটি করপোরেশন নির্বাচন অনেক দেরি। ওটাকে আমরা ধর্তব্যের মধ্যে আনছি না। বাকি পাঁচটার ক্ষেত্রে হয়তো দুই দিনে হতে পারে। তিন দিনেও হতে পারে।’

জুন মাসের মধ্যে দুই সিটি ভোট করার ইচ্ছা প্রকাশ করে এই কমিশনার বলেন, ‘করার ইচ্ছা আছে। তবে এখন পর্যন্ত দিন তারিখ ঠিক হয়নি, চূড়ান্ত কিছু হয়নি। যেগুলো আগে ম্যাচিউরিটি (ক্ষণগণনা) শুরু হবে সেগুলো আগে হবে।’

সিটি নির্বাচনে সিসি ক্যামেরা থাকবে কি না- এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘এগুলো নির্ভর করবে বাজেটের ওপর৷ আমরা বাজেট চাইব, টাকা পেলে সিসি ক্যামেরা ব্যবহার করব।’

সিটি ভোটগুলোতে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) ব্যবহার করা হবে কি না জনতে চাইলে তিনি বলেন, ‘কমিশনের ইচ্ছা আছে। তবে ইভিএমগুলোর ব্যাটারির মেয়াদ শেষ হয়ে গেছে। ব্যাটারি রিপ্লেসমেন্ট করতে হবে। সার্ভিসিং করাতে হবে। সে জন্য টাকা লাগবে।’