উদ্বোধনী ম্যাচে মাশরাফীর সিলেট স্ট্রাইকার্সের বড় জয়

সিলেট স্ট্রাইকার্স। ছবি: সংগৃহীত
CPLUSTV
CTG NEWS
CPLUSTV
শেয়ার করুন

সিপ্লাস ডেস্ক: বিপিএলের উদ্বোধনী ম্যাচে বড় জয় পেয়েছে মাশরাফীর সিলেট স্ট্রাইকার্স। চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সকে আজ ৮ উইকেটে হারিয়ে আসরে শুভসূচনা করেছে দলটি।

প্রথমে বল হাতে বন্দরনগরীর দলটিকে মাত্র ৮৯ রানে আটকে ফেলে সিলেট স্ট্রাইকার্স। পরে ব্যাট হাতে ৮ ওভার বাকি থাকতেই জয় নিশ্চিত করে মাশরাফী বাহিনী। সিলেটের হয়ে মাত্র ১৪ রানে ৪ উইকেট শিকার করেন রেজাউর রহমান রাজা।

গত আসরে রেজাউর রহমান রাজা খেলেছিলেন চট্টগ্রামের হয়েই। তবে এবার আর তাকে দলে রাখেনি চট্টগ্রাম। এই আসরে রাজাকে দলে ভেড়ায় সিলেট স্ট্রাইকার্স। আসরের প্রথম ম্যাচেই একাদশে সুযোগ পেয়ে সাবেক দলকে আফসোসেই ফেলে দিলেন রাজা। রাজার বোলিং তোপেই ভেঙে গেছে চট্টগ্রামের ইনিংসের মেরুদণ্ড। চ্যালেঞ্জার্স অধিনায়ক শুভাগত হোম, উসমান খান, উন্মুক্ত চাঁদ ও নিহাদুজ্জামান শিকার হলেন তার বলে।

অবশ্য চট্টগ্রামকে কোণঠাসা করার শুরুটা হয় মোহাম্মদ আমিরের হাত ধরে। ওপেনার দরবেশ রাসুলিকে ফেরান তিনি। এর আগে আরেক ওপেনার মেহেদী মারুফ আউট হন রান আউটের শিকার হয়ে। এরপরই শুরু হয় রাজার ঝলক। মাঝে কলিন অ্যাকারম্যান ফেরান আলামিন জুনিয়রকে। আমির ফিরিয়েছেন ইনিংস সর্বোচ্চ ২৫ রান করা আফিফ হোসেনকে। শেষ দিকে এসে মৃতুঞ্জয়কে নিজের শিকারে পরিণত করেন মাশরাফী।

আফিফের ২৩ বলে ২৫ রানের ইনিংস বাদে আর কোনো ব্যাটসম্যান ২০-এর ঘর পাড়ি দিতে পারেননি। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ১৮ করেন আলামিন জুনিয়র। তাছাড়া মেহেদী মারুফ ১১(১৪), রাসুলি ৩(৯), শুভাগত ১(৭), উসমান খান ২(৪), উন্মুক্ত চাঁদ ৫(১০), মৃত্যুঞ্জয় ৩(৪) ও নিহাদুজ্জামান করে ৮(১৫) রান। ফলে মাত্র ৮৯ রানে থামে চট্টগ্রামের ইনিংস।

৯০ রানের লক্ষ্যে সিলেটের হয়ে ইনিংস উদ্বোধন করেন নাজমুল হোসেন শান্ত ও কলিন অ্যাকারম্যান। অ্যাকারম্যান ১ রান করে ফিরলেও জাকির হাসানকে সাথে নিয়ে দলকে এগিয়ে নিয়ে যান শান্ত। দু’জনের ৪৯ বলে ৬৩ রানের জুটি যতক্ষণে ভাঙে ততক্ষণে সিলেট জয় থেকে মাত্র ১৫ রান দূরে। জাকির হাসান আউট হন ২১ বলে ২৭ রান করে। তবে বাকি পথটুকু মুশফিককে সাথে নিয়ে স্বাচ্ছন্দ্যে পার করেন শান্ত। শেষ পর্যন্ত ৪১ বলে ৪৩ রান করে অপরাজিত থাকেন শান্ত। এছাড়া ৬ রানে অপরাজিত ছিলেন মুশফিক।

চট্টগ্রামের হয়ে একটি উইকেট নেন মৃত্যুঞ্জয় চৌধুরী, অন্যটি মালিন্দা পুস্পকুমারার।