আবুধাবিতে প্রবাসী সনাতনীদের পক্ষ থেকে বোয়ালখালীর পৌরসভার মেয়র জহুরুল ইসলাম জহুর কে সংবর্ধনা

মেয়র জহুরুল ইসলাম জহুর।
CPLUSTV
CTG NEWS
CPLUSTV
শেয়ার করুন

আমিরাত প্রতিনিধি: সংযুক্ত আরব আমিরাতের রাজধানী আবুধাবির শিল্প নগরী মুসাফ্ফা সানাইয়া ডায়মন্ড সিটি রেস্টুরেন্ট হলরুমে আবুধাবীতে অবস্থানরত প্রবাসী সনাতনদের উদ্যোগে গতকাল বাংলাদেশ থেকে আগত চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী যুবলীগের সম্মানিত সাধারণ সম্পাদক এবং বোয়ালখালী পৌরসভার সম্মানিত মেয়র জহুরুল ইসলাম জহুর কে এক সংবর্ধনা দেওয়া হয়।

আবুধাবির বিশিষ্ট ব্যবসায়ী জাতীয় হিন্দু মহা জোটের বৈদেশিক শাখার প্রধান উপদেষ্টা মৃণাল কান্তি ধর মিলনের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জহুরুল ইসলাম জহুর। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি এবং বিশেষ অথিতিদের  ফুলের শুভেচ্ছা জানান আবুধাবীতে অবস্থানরত প্রবাসী সনাতনীরা। সজল চৌধুরীর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে গীতা পাঠ করেন প্রমোদ পাল, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী পরিবারের সহ-সভাপতি মুক্তিযোদ্ধার সন্তান নজরুল ইসলাম হিরো, কানু লাল দাস, প্রকৌশলী সৌরভ বিশ্বাস, জাগো হিন্দু পরিষদ সংযুক্ত আরব আমিরাতের উপদেষ্টা সাংবাদিক ও ব্যবসায়ী সনজিত কুমার শীল, ব্যবসায়িক অপু চন্দ্র দাস, ব্যবসায়িক প্রসেনজিৎ কুমার শীল, ব্যবসায়ী সাগর শীল, হিন্দু মহাজোটের সাধারণ সম্পাদক সনজয় শীল, বিপ্লব দাস জয়,আকাশ শীল, দিলীপ দাস, অনুপম ধর।

অনুষ্ঠানের শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন সাংবাদিক সনজিত কুমার শীল। এতে বক্তব্য রাখেন রুপস দাস, রূপন দাস, উজ্জ্বল শীল, বাপ্পা বিশ্বাস সহ আরো অনেকে। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি জহুরুল ইসলাম জহুর বলেন বাংলাদেশ সম্প্রীতির দেশ। এ দেশ স্বাধীনতা যুদ্ধে হিন্দু- মুসলমান বৌদ্ধ- খ্রিস্টান একই সাথে মুক্তিযুদ্ধে যাবে বলেছিলেন। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে এ দেশ স্বাধীন করার পিছনে সবার সমান অধিকার রয়েছেন। যারা ধর্ম নিয়ে মানুষের মধ্যে বিবাদ হানাহানি সৃষ্টি করে তারা কখনো মানুষ হতে পারে না। বর্তমান সরকার উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রেখেছেন আজকে প্রবাসীদের রেমিটেন্সের মাধ্যমে তাই প্রবাসীদের ধন্যবাদ জানান। প্রবাসীদের ভোটার কার্ড এবং জন্ম নিবন্ধন এর সমস্যা থাকলে সরাসরি নিজ নিজ এলাকার অফিসে গিয়ে যোগাযোগ করার জন্য আহ্বান জানান। যারা হিন্দু মুসলিমের মাঝে বিদ্বেষ সৃষ্টি করতে চাই তাদেরকে সরকার আইনের আওতায় এনে শাস্তি ব্যবস্থা করবেন।