আঘাত হেনেছে ঘূর্ণিঝড় ‘মানদৌস’

ছবি: সংগৃহীত
CPLUSTV
CTG NEWS
CPLUSTV
শেয়ার করুন

সিপ্লাস ডেস্ক: ভারতের তামিলনাড়ুতে আঘাত হেনেছে শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় ‘মানদৌস’। ঘণ্টায় সর্বোচ্চ ৮৫ কিলোমিটার বেগে ভারতের তামিলনাড়ু ও পুদুচেরি উপকূলে আঘাত হানে এটি। এ অবস্থায় চেন্নাই বিমানবন্দরে বেশ কয়েকটি ফ্লাইট বাতিল করা হয়েছে। ঝড়ের প্রভাবে বিভিন্ন স্থানে ভারি বৃষ্টিপাত হয়েছে।

দুর্ঘটনা এড়াতে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে পার্ক, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানসহ বিভিন্ন দোকানপাট। খবর জি নিউজের।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, শুক্রবার মধ্যরাতে ভারতের তামিলনাড়ুতে আঘাত হানে শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় মানদৌস। ঘণ্টায় সর্বোচ্চ ৮৫ কিলোমিটার বেগে তামিলনাড়ুর পুদুচেরি ও তামিলনাড়ুর শ্রীহরিকোটার মাঝামাঝি মহাবলীপুরমের উপকূলে আঘাত হানে ঝড়টি। ঝড়ের প্রভাবে এরই মধ্যে উপকূলের পানির উচ্চতা বেড়ে গেছে। তামিলনাড়ুর বিভিন্ন জেলায় ভারি বৃষ্টিপাতে দুর্ভোগে পড়েন বাসিন্দারা।

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে, ঘূর্ণিঝড় ‘মানদৌসে’র তাণ্ডবের শিকার ভারতের চেন্নাই। রাজ্যের বিভিন্ন এলাকায় ঘূর্ণিঝড়ের কবলে পড়ে ভেঙে গেছে শতাধিক গাছ। লণ্ডভণ্ড হয়ে গেছে মেরিনা বিচও। বেশ কিছু এলাকায় বন্যার সৃষ্টি হয়েছে। ভেঙে পড়েছে দেয়াল ও বৈদ্যুতিক খুঁটি। তবে এখনো কোনো হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি।

শুক্রবার রাত সাড়ে ১০টায় বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড় স্থলভাগে আছড়ে পড়ে। রাত দেড়টা নাগাদ তামিলনাড়ুর মহাবলীপুরমের ওপর দিয়ে অতিক্রম করে মানদৌস।

এ ছাড়া রাজ্যটির অন্তত ১২ জেলায় ভারি বৃষ্টিতে সৃষ্ট ভূমিধসের আশঙ্কায় সতর্কতা জারি করেছে কর্তৃপক্ষ। এ অবস্থায় তামিলনাড়ুর ওই জেলাগুলোতে রেড অ্যালার্ট জারি করা হয়েছে।

কর্তৃপক্ষ বলছে, ঘূর্ণিঝড় মোকাবিলায় নেওয়া হয়েছে নানা প্রস্তুতি। স্থানীয়দের শুকনো খাবার ও বিশুদ্ধ পানিসহ প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র কাছে রাখার নির্দেশনা দিয়েছে কর্তৃপক্ষ। পাঁচ হাজারের বেশি আশ্রয়কেন্দ্র প্রস্তুত রাখা হয়েছে বলেও জানিয়েছে প্রশাসন।

দক্ষিণ আন্দামান সাগর এবং তৎসংলগ্ন এলাকায় সৃষ্ট একটি লঘুচাপ থেকে এ ঘূর্ণিঝড়ের উৎপত্তি। শনিবারের মধ্যেই তা ধীরে ধীরে নিম্নচাপে পরিণত হতে পারে বলে আভাস দিয়েছে আবহাওয়া দফতর।