অনুমতির বাইরে গিয়ে বিএনপি সমাবেশ করলেই ব্যবস্থা: ডিবি প্রধান

ছবি: সংগৃহীত
CPLUSTV
CTG NEWS
CPLUSTV
শেয়ার করুন

সিপ্লাস ডেস্ক: আগামী ১০ ডিসেম্বর রাজধানীতে বিএনপির ঢাকা বিভাগীয় সমাবেশের জন্য পছন্দের জায়গা নয়াপল্টন ছাড়তে রাজি বিএনপি। তবে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে যেতে রাজি না দলটি। সেজন্য আরামবাগে সমাবেশের প্রস্তাব দিয়েছে দলটি।

বিএনপিকে ২৬টি শর্তে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সমাবেশের অনুমতি দিয়েছে ডিএমপি। বিএনপি চাইলে টঙ্গীতে বিশ্ব ইজতেমার মাঠে অথবা পূর্বাচলে আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলার মাঠে সমাবেশ করতে পারেও বলে জানানো হয়েছে।

তবে নয়াপল্টন অথবা আরামবাগে সমাবেশের সিদ্ধান্তেই অনঢ় থাকছে দলটি। অনুমতি না দিলে প্রস্তাবিত স্থানেই সমাবেশ করা হবে বলে ঘোষণা দিয়েছেন বিএনপির একাধিক নেতা। তবে তেমন হলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানিয়েছেন ডিএমপির ডিবি প্রধান হারুন অর রশিদ।

মঙ্গলবার (৬ ডিসেম্বর) তিনি বলেন, অনুমতির বাইরে গিয়ে বিএনপি সমাবেশ করলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। গোয়েন্দা তথ্য বলছে, বিএনপি আগের দিন শুক্রবার জুমার পর থেকে ঢাকার রাস্তা ও মাঠে অবস্থান নেবে। এমন কোনো কিছুই করতে দেয়া হবে না।

এর আগে মঙ্গলবার সকালে নয়াপল্টনের বিকল্প হিসেবে আরামবাগে সমাবেশ করার জন্য বিএনপির দেয়া প্রস্তাবের বিষয়ে কথা বলেন ডিএমপির মুখপাত্র ফারুক হোসেন। তিনি বলেন, ১০ ডিসেম্বর সমাবেশের জন্য বিএনপিকে সোহরাওয়ার্দী উদ্যান দেয়া হয়েছিল। এদিকে বিএনপি আরামবাগ মাঠে সমাবেশ করার জন্য অনুমতি চেয়ে প্রস্তাব দিয়েছে। তবে সোহরাওয়ার্দী উদ্যান বা বিশ্ব ইজতেমার ময়দানেই অনুমতি দিতে চায় পুলিশ।

ডিএমপি বলছে, কোনোভাবেই রাস্তায় সমাবেশের অনুমতি দেয়া হবে না। এছাড়া, বিএনপি নেতাকর্মীদের ধরতে পুলিশের কোনো অভিযান চলছে না জানিয়ে ডিএমপির মুখপাত্র আরও জানান, ১ ডিসেম্বর থেকে ১৫ ডিসেম্বর পর্যন্ত মাদক ব্যবসায়ী বা যাদের বিরুদ্ধে মামলা আছে তাদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে।