হিন্দু স্কুল অধ্যক্ষের ইসলাম বিরোধী মন্তব্যের জেরে পাকিস্তানে দাঙ্গা

CPLUSTV
CTG NEWS
CPLUSTV
শেয়ার করুন

সংখ্যালঘু হিন্দু স্কুল অধ্যক্ষের ইসলাম বিরোধী মন্তব্যের জেরে দাঙ্গা দেখা দিল পাকিস্তানের সিন্ধু প্রদেশে। পুলিশি হস্তক্ষেপে শেষ পর্যন্ত পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এলেও এলাকায় থমথমে পরিবেশ বহাল রয়েছে বলে জানা গেছে।

গতকাল রবিবার সিন্ধু পাবলিক স্কুলের অধ্যক্ষ নোটন মালের বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগ জানান আবদুল আজিজ রাজপুত নামে এক অভিভাবক। তার দাবি, ইসলাম ধর্মের বিরুদ্ধে কুৎসা রটিয়েছেন ওই অধ্যক্ষ। নোটনের বিরুদ্ধে ঘোটকি থানায় এফআইআর দায়ের করা হয়। এদিকে, খবর ছড়িয়ে পড়তেই উত্তপ্ত হয়ে ওঠে পরিবেশ। সংখ্যালঘু হিন্দুদের বিক্ষিপ্ত মারধর ও তাদের নিশানা করে পাথর ছোড়ার অভিযোগ ওঠে।পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করতে নামে পুলিশবাহিনী। এরপর বিক্ষোভকারীদের দাবি মেনে গ্রেফতার করা হয় অধ্যক্ষকে। নিরাপত্তার কারণে তাকে হেফাজতে নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন অতিরিক্ত ইন্সপেক্টর জেনারেল জামিল আহমেদ। টুইটারে তিনি বলেন, ‘অভিযোগের ভিত্তিতে যথাযথ তদন্ত করা হবে। সত্য উদ্ঘাটনের পরে ন্যায়বিচার পাওয়া যাবে।’

পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ দলের বিধায়ক তথা পাকিস্তান হিন্দু কাউন্সিলের প্রধান রমেশ কুমার বাঁকওয়ানি জানিয়েছেন, অভিযোগের তদন্তের ভার দেওয়া হয়েছে হায়দরাবাদ ডেপুটি ইন্সপেক্টর জেনারেল নইম শেখের উপর। তার দাবি, বিক্ষোভকারীরা তিনটি মন্দির ভাঙচুর করা ছাড়াও হিন্দু সম্প্রদায়ের একটি স্কুল এবং বেশ কিছু বসতবাড়িতে লুটপাট চালণ হয়েছে। দাঙ্গায় অন্তর্ভুক্তদের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করতে তিনি পুলিশের কাছে আবেদন জানিয়েছেন।