সৌদিতে দুই দিনের ব্যবধানে সড়ক দুর্ঘটনায় ৬ বাংলাদেশি নিহত

CPLUSTV
CTG NEWS
CPLUSTV
শেয়ার করুন

সৌদি আরবে দুই দিনের ব্যবধানে পৃথক পৃথক মর্মান্তিক সড়ক দূর্ঘটনায় ৬ বাংলাদেশি নিহত হয়েছে।

রাজধানী রিয়াদের সোলাই এলাকায় এক মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় দুই বাংলাদেশি নিহত এবং আহত হয়েছেন আরও অন্তত ৫ জন।

রাজধানী রিয়াদে সড়ক দূর্ঘটনায়- নিহত দুই বাংলাদেশি হলেন কুমিল্লা জেলার বরুরা উপজেলার ইয়াসিন মিয়া এবং ময়মনসিংহ জেলার গফরগাও উপজেলার ইয়াসিন আলী। তারা দুজনেই একটি কোম্পানীতে পরিচ্ছন্নকর্মী হিসেবে নিয়োজিত ছিলেন।

জানা গেছে, গত ১৮-অক্টোবর বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ সময় বিকাল সাড়ে ৪-টার দিকে কাজ শেষ গাড়ীতে করে বাসায় ফিরছিলেন। এ সময় তাদের বহনকারী গাড়ীটি সোলাই এলাকায় পৌছালে একটি লড়ির সাথে ধাক্কা লেগে ঘটনাস্থলেই দু’জনের মৃত্যু হয়। নিহতদের লাশ বর্তমানে রিয়াদের সেমুসী সরকারি হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে। আহতদের স্থানীয় একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

অন্যদিকে গত ১৬ অক্টোবর বুধবার দিবাগত রাতে সৌদির রাজধানী রিয়াদ থেকে প্রায় তিনশ কিলোমিটার দূরের এ দূর্ঘটনা ঘটে। নিহত বাংলাদেশিরা হলেন-বেলাল হোসেন (৩২)। তিনি নোয়াখালী জেলার কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার চর হাজারী ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ডের বেচু দরবেশের ছেলে। অপরজন আব্দুল কুদ্দুস (৩৫)। তিনি একই ওয়ার্ডের নুরুল হকের ছেলে।

জানাগেছে, বুধবার দিবাগত রাতে রাজধানী রিয়াদ থেকে ৩০০ কিলোমিটার দূরে নিজের মোটরসাইকেলে করে কাজে যাচ্ছিলেন তারা। এ সময় বিপরীত দিক থেকে আসা একটি কাভার্ডভ্যান তাদের চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই তাদের মৃত্যু হয়েছে। নিহতদের লাশ বর্তমানে স্থানীয় একটি সরকারি হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে। অপরদিকে পবিত্র মক্কা-মদিনা রোড়ে গত ১৭ অক্টোবর বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে চলন্ত অবস্থায় দু’বাস মুখোমুখি সংঘর্ষে আগুন লেগে ৩৬ ওমরাহ হজ্বযাত্রী মধ্যে অপর বাসে নিহত দুই বাংলাদেশি যুবক একই পরিবারের সহোদর ভাই।

জানাগেছে, একটি বাস দু‘র্ঘটনায় ৩৬ ওমরাহ যাত্রী নিহত হয়েছেন। একটি বাসের সঙ্গে অপর একটি ভারী যানের সংঘর্ষে এই দুর্ঘ‘টনা ঘটেছে। এদের মধ্যে আব্দুল হালিম (৩০) ও দ্বীন ইসলাম (২৫) নামে দুই বাংলাদেশি সহোদর ভাইয়ের মৃত্যু হয়েছে। একই পরিবারের সহোদর নিহত দুই বাংলাদেশি যুবকের গ্রামের বাড়ি নারায়ণগঞ্জ জেলার রূপগঞ্জের উপজেলাধীন কাঞ্চন পৌরসভার কলাকতলী এলাকার মুহাম্মদ হাবিব উল্লাহ মিয়া পুত্র।