সোহাগ হত্যা: আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি

ছবি: সংগৃহীত
CPLUSTV
CTG NEWS
CPLUSTV
শেয়ার করুন

নিজস্ব প্রতিবেদক: নগরের চকবাজার থানার মৌসুমি আবাসিকের মোড়ে সৌরভ খান সোহাগ হত্যাকাণ্ডের দায় স্বীকার করে ফৌজদারি কার্যবিধির ১৬৪ ধারায় আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন গ্রেফতার মো. শফি।

বুধবার ( ১৩ জুলাই) চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট জুয়েল দেবের আদালতে হাজির করা হলে সোহাগকে হত্যার কথা স্বীকার করে শফি।

এরপর তাকে কারাগারে পাঠানো হয়। সোহাগ হত্যায় কারাগারে পাঠানো ২ জন হলেন- নগরের চকবাজার থানার ডিসি রোড হাজি মোহাম্মদ হোসেন বাড়ির মৃত মোহাম্মদ হোসেনের ছেলে মো. শফি (৫০) ও তার ছেলে সাকিব হোসেন (১৯)।

চকবাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. ফেরদৌস জাহান গণমাধ্যমকে বলেন, সৌরভ খান সোহাগ হত্যা মামলায় গ্রেফতার বাবা মো.শফি ও ছেলে সাকিব হোসেনকে আদালতে হাজির করা হয়। মো.শফি ও সাকিব হোসেন আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেওয়ার কথা থাকলেও সাকিব হোসেন দেয়নি। মো.শফি ফৌজদারি কার্যবিধির ১৬৪ ধারায় আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। সাকিব হোসেনের ৫ দিনের রিমান্ড আবেদন করা হবে।

তিনি বলেন, সোহাগ হত্যার ঘটনায় বাবা হারুনুর রশীদ বাদী হয়ে চারজনকে আসামি করে মামলা করেছেন। মামলায় মো.শফি, তার স্ত্রী মঞ্জু বেগম, ছেলে সাকিব হোসেন ও মাহমুদ নামে একজনকে আসামি করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (১২ জুলাই) দুপুর ১২টার দিকে চকবাজার থানার মৌসুমি আবাসিকের মোড়ে সৌরভ খান সোহাগ (২৩) নামের এক ক্যাবল অপারেটরকে ছুরিকাঘাতে খুন করা হয়েছে। সৌরভ খান সোহাগ নগরের কোতোয়ালী থানার দেওয়ানবাজারের মাছুয়া ঝর্না এলাকার নুর ইসলাম সওদাগরের বাড়ির হারুনুর রশীদের ছেলে। তিনি চকবাজার থানার ডিসি রোড ফরিদ ম্যানশনে বসবাস করেন। তিনি ইন্টারনেটের সংযোগের ক্যাবল অপারেটর।