সীতাকুণ্ডে চীনা প্রতিষ্ঠানকে দুই লক্ষ টাকা জরিমানা

CPLUSTV
CTG NEWS
CPLUSTV
শেয়ার করুন

পরিবেশ অধিদপ্তরের অনুমতি না নিয়ে সম্পূর্ণ অবৈধভাবে অনেকটা গোপনে সীতাকুণ্ডের কদমরসুল এলাকায় গড়ে তোলা ” হাঙা ইন্টারন্যাশনাল” নামে চীনা প্রতিষ্ঠানকে দুই লক্ষ টাকা জরিমানা করেছে পরিবেশ অধিদপ্তর চট্টগ্রাম অঞ্চল।

পরিবেশ অধিদফতর চট্টগ্রাম অঞ্চলের পরিচালক মোহাম্মদ মোয়াজ্জেম হোসাইনের সাক্ষরিত প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয় পরিবেশগত ছাড়পত্র বিহীনভাবে প্রতিষ্ঠান পরিচালনা করে পরিবেশ ও প্রতিবেশের ক্ষতি সাধন করায় বাংলাদেশ পরিবেশ সংরক্ষণ আইন ১৯৯৬ এর ধারা ৭ এর আলোকে হাঙা ইন্টারন্যাশনাল” নামে চীনা প্রতিষ্ঠানকে দুই লক্ষ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

বুধবার সকালে উক্ত কারখানাতে গিয়ে পরিবেশ অধিদপ্তর উক্ত জরিমানা করেন।

উল্লেখ যে, অনেকটা গোপনীয়ভাবে কদমরসুল এলাকায় বন্ধ দুটি ইস্পাত কারখানার জায়গা ব্যবহার করে এসব প্ল্যান্ট চালু করে চীনা দুটি প্রতিষ্ঠান। সবার নজর এড়াতে লোহা পোড়ানোর কাজটি করা হচ্ছে রাতে। এতে মারাত্মক দূষণ হয় কারখানার আশপাশের পরিবেশ। দূূরগন্ধযুক্ত কালো ধুুঁয়া পুুুরো এলাকা আছন্ন হয়ে যায়। মিলস্কেল বা রড তৈরিতে সৃষ্ট বর্জ্য যা রিসাইক্লিং করে পুনরায় তৈরি হয় রড তৈরির কাঁচামাল তৈরী করা হতো উক্ত কারখানাতে। পরিবেশ দূষণের দায়ে এমন রিসাইক্লিং কারখানাগুলো বন্ধ করে দিয়েছে চীন।

আর এ সুযোগে হাঙা ইন্টারন্যাশনাল নামে দেশটির একটি প্রতিষ্ঠান গোপনে রিসাইক্লিং প্ল্যান্ট স্থাপন করেছে সীতাকুণ্ডের কদমরসুল এলাকায় বন্ধ থাকা সালেহ কার্পেট কারখানার অভ্যন্তরে। স্থানীয়রা বলছেন, পোড়ানোর সময় ধোঁয়ায় আচ্ছন্ন হয়ে পড়ে গোটা এলাকা। মারাত্বক দুুুরগন্ধে মানুষ নাকে মুখে রুমাল দিয়ে চলাফেরা করতে হয়।

আন্তর্জাতিক মানদন্ড অনুযায়ী এধরনের প্ল্যান্ট করতে হলে স্থাপন করতে হয় বিশেষ চুলা আর চিমনি। কিন্তু অবৈধ এসব প্ল্যান্টে এমন কোন ব্যবস্থাই নেই।