সিন্ডিকেট আর ব্যবসায়ীদের স্বার্থে যে সরকার চলে সেটা সিন্ডিকেটের সরকার: সিপিবি

ছবি: সংগৃহীত
CPLUSTV
CTG NEWS
CPLUSTV
শেয়ার করুন

সিপ্লাস ডেস্ক: সিন্ডিকেট আর ব্যবসায়ীদের স্বার্থে যে সরকার চলে সেটা সিন্ডিকেটের সরকার বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ও সাবেক সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম।

বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ও সাবেক সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম বলেন, ‘দাম বাড়ানোর আগে দুই পক্ষের সঙ্গে আলাপ করা হয়নি কেন? কম দামে বিক্রি করলে ব্যবসায়ীদের ক্ষতি হবে এটা ব্যবসায়ীদের কাছে শুনল। কিন্তু যারা আমরা কিনে খাই, কত দামে কিনলে আমাদের পোষাবে তা কেন শোনা হলো না? সিন্ডিকেট আর ব্যবসায়ীদের স্বার্থে যে সরকার চলে সেটা সিন্ডিকেটের সরকার।’

শনিবার (৭ মে) বিকেলে ভোজ্যতেলের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদ, দাম কমানো এবং ভোজ্যতেল নিয়ে কারসাজি সৃষ্টিকারী, সিন্ডিকেট ও মজুতদারদের শাস্তির আওতায় আনার দাবিতে বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি আয়োজিত বিক্ষোভ সমাবেশে তিনি এ কথা বলেন।

রাজধানীর পল্টন মোড়ে আয়োজিত বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তারা বলেন, বিনা ভোটের সরকার ক্ষমতায় টিকে থাকতে জনগণের ওপর শোষণ চালিয়ে যাচ্ছে। খাদ্যদ্রব্যের মূল্যের অস্বাভাবিক ঊর্ধ্বগতি রুখতে রাষ্ট্রীয় উদ্যোগে নিত্যপণ্যের মজুত গড়ে তুলে রেশনিং ব্যবস্থা ও ন্যায্যমূল্যের দোকানের মধ্য দিয়ে তা বিক্রির আহ্বান জানান বক্তারা।

শনিবার সারা দেশে ৫০টি জেলায় বিক্ষোভ সমাবেশ করা হয়েছে জানিয়ে রুহিন হোসেন প্রিন্স বলেন, ‘ব্যবসায়ীরা যেসব পণ্য আমদানি করেন সেগুলো রাষ্ট্রীয়ভাবে আমদানি করেন, মজুত গড়ে তোলেন। ব্যবসায়ীরা ন্যায্যমূল্যে পণ্য বিক্রি না করলে ন্যায্যমূল্যের দোকান খুলে রাষ্ট্রীয়ভাবে বিক্রি করেন। তারপরও যদি তেলের দাম এই সরকার কমাতে না পারে তাহলে এই সরকারের আর দরকার নাই।’

সিপিবির সহ-সাধারণ সম্পাদক মিহির ঘোষ বলেন, ‘স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে সবকিছুর দাম রেকর্ড ছুঁয়েছে। গণতন্ত্র হরণ, লুটপাট, দুর্নীতি ছাড়া আর কি পেলাম আমরা? এমপিদের বেশির ভাগ গ্রুপ অব কোম্পানির মালিক। এরাই সিন্ডিকেট তৈরি করে। শেয়ারবাজার কেলেঙ্কারির সবচেয়ে বড় হোতা সালমান এফ রহমান এখন প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা।’

সমাবেশ শেষে একটি বিক্ষোভ মিছিল গুলিস্তানের জিরো পয়েন্ট ঘুরে পল্টন মোড়ে এসে শেষ হয়। সিপিবির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য এ এন রাশেদার সভাপতিত্বে সমাবেশ আরও বক্তব্য রাখেন সংগঠনটির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য সাজ্জাদ জহির চন্দন, লাকী আক্তারসহ প্রমুখ।