সাশ্রয়ী মূল্যে ওয়ালটনের দ্বাদশ প্রজন্মের নতুন গেমিং ল্যাপটপ

ছবি: সংগৃহীত
CPLUSTV
CTG NEWS
CPLUSTV
শেয়ার করুন

সিপ্লাস ডেস্ক:  নতুন মডেলের সাশ্রয়ী মূল্যের হাই কনফিগারেশনের গেমিং ল্যাপটপ বাজারে ছেড়েছে দেশীয় প্রযুক্তিপণ্য নির্মাতা প্রতিষ্ঠান ওয়ালটন। কেরোন্ডা সিরিজের আকর্ষণীয় ডিজাইনের ওই ল্যাপটপটির মডেল কেরোন্ডা জিএক্স সেভেনটুয়েলভ এইচ (Karonda GX712H)। এতে ব্যবহৃত হয়েছে ইন্টেলের দ্বাদশ প্রজন্মের প্রসেসর, এনভিডিয়া ৪ গিগাবাইট জিফোর্স আরটিএক্স গ্রাফিক্স, ৩২০০ মেগাহার্জ গতির ১৬ জিবি ডিডিআরফোর র‌্যাম, ৫১২ গিগাবাইট এনভিএমই সলিড স্টেট ড্রাইভসহ অসংখ্য অত্যাধুনিক ফিচার।

ওয়ালটন কম্পিউটার ও আইটি এক্সেসসরিজের প্রধান বাণিজ্যিক কর্মকর্তা তৌহিদুর রহমান রাদ জানান, নতুন এই গেমিং ল্যাপটপটির দাম ১২৯,৯৯০ টাকা। নগদ মূল্যের পাশাপাশি ল্যাপটপটি কিস্তিতে কেনা যাবে। ‘ঈদ উল্লাস অফার’-র আওতায় কোনো ধরনের ডাউনপেমেন্ট ছাড়া শুধুমাত্র এক মাসের কিস্তির সমপরিমাণ টাকা জমা দিয়ে ওয়ালটন প্লাজা থেকে এই গেমিং ল্যাপটপসহ ওয়ালটনের অন্যান্য মডেলের ল্যাপটপ, ডেস্কটপ, অল-ইন-ওয়ান পিসি ও ট্যাব কিনতে পারছেন গ্রাহক। এই সুবিধা থাকছে চলতি মাসের ১৫ তারিখ থেকে চাঁদরাত পর্যন্ত।

ওয়ালটন ডিজি-টেক ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের ডেপুটি ম্যানেজিং ডিরেক্টর প্রকৌশলী লিয়াকত আলী বলেন, গেম খেলার পাশাপাশি ডিজাইন, সিমুলেশন এবং গ্রাফিক্সের ভারী কাজ করার জন্য প্রয়োজন হাই কনফিগারেশনের ল্যাপটপ বা ডেক্সটপ। বাজারে থাকা অন্যান্য ব্র্যান্ডের গেমিং ল্যাপটপের মূল্য অনেক বেশি। তাই সবার চাহিদা ও প্রয়োজনীয়তা বিবেচনায় আমরা সাশ্রয়ী মূল্যের এই গেমিং ল্যাপটপ বাজারে ছেড়েছি। কোনো ধরনের ডাউনপেমেন্ট বা ইন্টারেস্ট না থাকায় সহজেই কিস্তি সুবিধায় গ্রাহকরা আমাদের এই ল্যাপটপ কিনতে পারবেন। এরফলে শিক্ষার্থী, চাকুরিজীবি, ফ্রিলান্সারসহ সবাই প্রয়োজনীয় হাই কনফিগারেশনের ডিভাইসটি নিতে পারবেন।

জানা গেছে, নতুন এই ল্যাপটপে ব্যবহার করা হয়েছে ১৫.৬ ইঞ্চির ফুল এইচডি ম্যাট আইপিএস এলইডি ব্যাকলিট ডিসপ্লে। এর রিফ্রেশ রেট ১৪৪ হার্জ হওয়ায় গেমারদের কাছে এটি বিশেষ আকর্ষণীয়। ল্যাপটপটির পর্দার রেজ্যুলেশন ১৯২০ বাই ১০৮০ পিক্সেল। ফলে এতে স্পষ্ট ও প্রাণবন্ত ছবি দেখার অভিজ্ঞতা মিলবে। গেম খেলা, কাজ করা বা মুভি দেখায় পাওয়া যাবে অসাধারণ অনুভূতি। এর ম্যাট ডিসপ্লে প্যানেল আলোর প্রতিফলন রোধ করে চোখকে আরাম দেবে।

কেরোন্ডা জিএক্স সেভেনটুয়েলভ এইচ (Karonda GX712H) ল্যাপটপের উচ্চগতি নিশ্চিতে আছে ইন্টেলের দ্বাদশ প্রজন্মের ৩.৫০ গিগাহার্টস ক্লকরেটের কোর আই সেভেন ১২৭০০এইচ প্রসেসর। মেমোরি ডিভাইস হিসেবে রয়েছে ৩২০০ মেগাহার্জ গতির ১৬ গিগাবাইট ডিডিআরফোর র‌্যাম, যা আলাদা স্লটের মাধ্যমে ৬৪ জিবি পর্যন্ত বাড়ানোর সুযোগ রয়েছে। প্রয়োজনীয় গেম, সফটওয়ার, ডকুমেন্ট, মুভি ইত্যাদি সংরক্ষণের জন্য আছে এনভিএমই ৫১২ গিগাবাইট সলিড স্টেট ড্রাইভ। দুটি স্লট থাকায় ২ টেরাবাইট পর্যন্ত স্টোরেজ বাড়ানো যাবে।

শক্তিশালী ও ভারী গেম অনায়াসে চলার জন্য এই ল্যাপটপে গ্রাফিক্স হিসেবে আছে এনভিডিয়া এর ৪ গিগাবাইট জিফোর্স আরটিএক্স ৩০৫০ জিডিডিআর৬ ভিডিও র‌্যাম। পাশাপাশি রয়েছে বিল্টইন ইন্টেল আইরিস এক্সই গ্রাফিক্স। ফলে গেম খেলার সময় অসাধারণ অভিজ্ঞতা মিলবে। ছবি বা ভিডিও এডিটিং কাজের গ্রাফিক্যাল কালার ও মানও হবে অনেক বেশি উচ্চপর্যায়ের।

 

আকর্ষণীয় গেমিং আবহ তৈরিতে এই ল্যাপটপে আছে হাই ডেফিনেশন অডিও। বিল্ট ইন অ্যারে মাইক্রোফোন। দুইটি স্পিকার থাকায় স্পষ্ট ও জোড়ালো শব্দ পাওয়া যাবে। সাউন্ড ব্লাস্টার সিনেমা সিক্স প্লাস থাকায় আলাদা স্পিকার ব্যবহারে শব্দের মান অপরিবর্তিত থাকবে।

দীর্ঘক্ষণ পাওয়ার ব্যাকআপের নিশ্চয়তায় এই ল্যাপটপে ব্যবহৃত হয়েছে শক্তিশালী ৪ সেলের পলিমার ব্যাটারি প্যাক। যা প্রায় ৭ ঘন্টা ব্যাটারি ব্যাক-আপ দিতে সমর্থ।

ল্যাপটপটির অন্যান্য বিশেষ ফিচারের মধ্যে আছে জেনুইন উইনডোজ ১০ হোম, মাল্টি কালারের ইলুমিনেটেড ফুল সাইজ কি-বোর্ড, ১ মেগা পিক্সেলের এইচডি ক্যামেরা, ২ টি ইউএসবি ৩.২ টাইপ সি পোর্ট, ১টি ইউএসবি ৩.২ টাইপ এ পোর্ট, ১টি ইউএসবি ২.০ পোর্ট, ডুয়াল ব্যান্ড ওয়াইফাই, ব্লুটুথ ৫.২, ২টি এম.২ কার্ড স্লট, এইচডিএমআই, মিনি ডিসপ্লে পোর্ট, টু ইন ওয়ান অডিও জ্যাক, মাইক্রোফোন জ্যাক, ল্যান পোর্ট ইত্যাদি।

এতসব ফিচার থাকা সত্ত্বেও আকর্ষণীয় ডিজাইনের ল্যাপটপটি বেশ হালকা। ব্যাটারিসহ ওজন মাত্র ১.৯ কেজি। ফলে যে কোনো স্থানে সহজেই বহন করা যাবে। এর দৈর্ঘ্য ৩৫৯.৫ মিমি, ২৩৮ মিমি চওড়া এবং পুরুত্ব ২২.৭ মিমি।

কেরোন্ডা সিরিজের এই ল্যাপটপে গ্রাহকরা ওয়ালটন সার্ভিস সেন্টার থেকে ২ বছরের বিক্রয়োত্তর সেবা পাবেন।