সরকার ও প্রশাসনকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখাচ্ছে বাজার সিন্ডিকেট: ইনু

ছবি: সংগৃহীত
CPLUSTV
CTG NEWS
CPLUSTV
শেয়ার করুন

সিপ্লাস ডেস্ক: জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জাসদের সভাপতি হাসানুল হক ইনু এমপি বলেছেন, নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের অস্বাভাবিক দাম বৃদ্ধিতে জনগণ কষ্টে আছে। সরকার ও প্রশাসনকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে বাজার সিন্ডিকেট কারসাজি করেই চলেছে। কোনো অজুহাত না দেখিয়ে দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণের জন্য বাজার সিন্ডিকেট ধ্বংস করার দায়িত্ব সরকারকেই নিতে হবে।

শুক্রবার বিকেল ৪টার দিকে বঙ্গবন্ধু এভিনিউস্থ জাসদ চত্বরে জাসদের সহযোগী যুব সংগঠন জাতীয় যুব জোটের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।

তিনি বলেন, বিএনপি-জামায়াত জনগণের দুঃখ-কষ্টকে পুঁজি করে ক্ষমতার রাজনীতি করছে। বিএনপি-জামায়াতের কাছে সংকট সমাধানের কোনো প্রস্তাব নাই। তারা ক্ষমতা ছাড়া কিছুই বুঝে না। বিএনপি আন্দোলনের নামে যা করছে তার ভেতরে গণতন্ত্রও নাই, যুবসমাজসহ জনগণের কোনো স্বার্থও নাই। বিএনপির আন্দোলন নিছক ক্ষমতা দখলের আন্দোলন।

তিনি আরও বলেন, দেশের যুব সমাজকে দুর্নীতি-লুটপাট ও দ্রব্যমূল্যের উর্ধগতিতে দুর্দশাগ্রস্থ জনগণের পাশে দাঁড়ানোর পাশাপাশি বিএনপি-জামায়াতের ক্ষমতা দখলের রাজনীতিও মোকাবেলা করতে হবে।

শিরীন আখতার এমপি বলেন, মুক্তিযুদ্ধ যারা করেছিলো তারা যুবকই ছিলো। সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে লড়াইয়েও যুবকদেরই ঝান্ডা ধরতে হবে।

তিনি বলেন, বাঙালিদের যারা ধ্বংস করতে চায়, ধর্মের নামে যারা পাকিস্তানি মধ্যপ্রাচ্যের সংস্কৃতি চাপিয়ে দিতে চায় তাদের প্রতিরোধ করে বাঙালিয় সংস্কৃতি প্রসারে যুব সমাজকে প্রথম সারির যোদ্ধা হিসাবে অবতীর্ণ হতে হবে।

তিনি আরও বলেন, যুব কর্মসংস্থানের জন্য যুবকদের প্রাতিষ্ঠানিক প্রশিক্ষণ সুবিধা রাখা এবং স্বল্প সুদে জামানতবিহীন ঋণ প্রদান করতে হবে। যুব সমাজ যেন চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের সুযোগ-সুবিধা থেকে বঞ্চিত না হয় সেজন্য নিজেদের তৈরি করতে হবে।

জাতীয় যুব জোটের সভাপতি রোকনুজ্জামান রোকনের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক শরিফুল কবির স্বপনের সঞ্চালনায় এ সমাবেশে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য প্রদান করেন, জাসদের সাধারণ সম্পাদক শিরীন আখতার এমপি, জাসদের সহ-সভাপতি বীরমুক্তিযোদ্ধা শফি উদ্দিন মোল্লা, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শওকত রায়হান, নইমুল আহসান জুয়েল, জাতীয় যুব জোটের সহ-সভাপতি কাজী সালমা সুলতানা, জাতীয় নারী জোট নেত্রী সৈয়দা শামীমা সুলতানা হ্যাপী, জাতীয় আইনজীবী পরিষদের নেতা এড. মোহাম্মদ সেলিম, জাতীয় কৃষক জোটের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কামরুজ্জামান ফঁসি, জাতীয় যুব জোটের সহ-সভাপতি আমিনুল আজিম বনী, প্রদীপ কুমার রায়, শুভংকর দে বাপ্পা, ফজলুল কাদের, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ সামছুল ইসলাম সুমন, সাংগঠনিক সম্পাদক শরিফুল ইসলাম সুজন, আইন বিষয়ক সম্পাদক এড. হাসান আকবর আফজল, নারী বিষয়ক সম্পাদক পারভেজ আক্তার শিল্পী, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ (ন-মা) কেন্দ্রীয় সংসদের সভাপতি রাশিদুল হক ননী প্রমুখ।