সড়ক দূর্ঘটনায় নিহত মিশু’র ভাই-বোনের পড়ালেখার দ্বায়িত্ব নিলেন কেন্দ্রীয় যুবলীগ নেতা এলিট

কেন্দ্রীয় যুবলীগ নেতা এলিট
CPLUSTV
CTG NEWS
CPLUSTV
শেয়ার করুন

নিজস্ব প্রতিবেদক: প্রতিদিন খুব সকালে মেয়েকে কলেজে দিয়ে আসতেন সূর্য দেব নাথ।তারপর প্রাত্যহিক কাজে হাত লাগান।মেয়ের স্বপ্ন ছিল এইচএসসি পাশ করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ালেখার।সেই স্বপ্নই দেখছিল কৃষক সূর্য দেবনাথ ও তার পরিবার।কিন্তু বিধি বাম ঘাতক লরি মুহুর্তে সেই আশা শেষ করে দে।

হাউমাউ করে কাঁদতে কাঁদতে এভাবেই সেদিনের ঘটনা বর্ননা করেন।শোকাবহ আগস্টের প্রথম সপ্তাহে আরেক হৃদয় বিদারক ঘটনা ঘটে গেছে চট্টগ্রাম জেলার মিরসরাই উপজেলার নিজামপুর সরকারি কলেজ এর সামনে।

গত মাসের মঙ্গলবার (২ আগস্ট )সকাল ৮ টায় উপজেলার ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের নিজামপুর কলেজ সম্মুখে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত মিশু রানী দেবী (১৯) উপজেলার খৈয়াছড়া ইউনিয়নের ১ নং ওয়ার্ডের পশ্চিম খৈয়াছড়া গ্রামের সূর্য দেবনাথের মেয়ে। সে নিজামপুর সরকারি কলেজের ব্যবসায় শিক্ষা শাখার এইচএসসি দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী ছিলেন তিনি।

সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত অদম্য মেধাবী শিক্ষার্থী মিশুর পরিবারের সঙ্গে দেখা করতে আসেন বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য নিয়াজ মোর্শেদ এলিট।

সে দিনের করুন ঘটনা বর্ননায় কেন্দ্রীয় যুবলীগ নেতা এলিট সহ সবার চোখের পানি চলে আসে।

এই সময় নিয়াজ মোর্শেদ এলিট নিহত মিশুর এক ভাই ও বোনের পড়ালেখার দ্বায়িত্ব নেন এবং নগদ অর্থ সহায়তা প্রদান করেন।

কেন্দ্রীয় যুবলীগ নেতা নিয়াজ মোর্শেদ এলিট   বলেন আপনার পরিবারের এই দূঃসময়ে আমি আপনাদের সাথে এই দুখে’র ভাগিদার হতে পেরে ভালো লাগছে।আপনাদের যে কোন সুবিধা অসুবিধা জানাবেন আমি আমার সাধ্যের মধ্যে আপনাদের সাথে থাকার চেষ্টা করবো।

সড়ক দুর্ঘটনায় রোধে সবাইকে আরও বেশি সচেতন হওয়ার আহবান জানান।

এই সময় আরও উপস্থিত ছিলেন যুবলীগ নেতা বঙ্গবন্ধু শিশু কিশোর মেলা চট্টগ্রাম উত্তর জেলার সভাপতি আছিফ রহমান শাহীন,যুবলীগ নেতা ইমতিয়াজ অভি, উপজেলা  যুবলীগ নেতা শওকত আজিম রিংকু সহ আরও অনেকে।