সখ্যতা গড়ে মোবাইল ছিনতাই, ছিনতাইকারী ধরা ছোঁয়ার বাইরে(ভিডিওসহ)

CPLUSTV
CTG NEWS
CPLUSTV
শেয়ার করুন

মোবাইল ছিনতাইকারীরা কতই না কৌশল অবলম্বন করে প্রতিনিয়ত মোবাইল ছিনতাই করে যাচ্ছে, কখনো নেতা, কখনো বড় ভাই, কখনো সখ্যতা গড়ে, আবার কখনো সমস্যার সমাধানদাতা হিসাবে হাজির হয়। পরে অভিনব কায়দায় সর্বস্ব লুটে নিয়ে উধাও হয়ে যায়।এবার সখ্যতা গড়ে নিজের স্ত্রী’র সাথে ফোনে কথা বলার কথা বলে এক কিশোর  থেকে মোবাইল ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটেছে। প্রতিনিয়ত এরকম অভিনব কায়দায় ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটলেও  ছিনতাইকারীরা থেকে যাচ্ছে পুলিশের ধরা ছোঁয়ার বাইরে।

১৮ সেপ্টম্বর রাতে নগরীর চান্দগাঁও থানাধীন এককিলোমিটার এলাকার মোহনা কমিউনিটি সেন্টারে এ ঘটনা ঘটে।

সিসিটিভির ফুটেজে দেখা যায়, ছিনতাইকারী আপ্যায়িত অতিথির ন্যায় কমিউনিটি সেন্টারে ঢুকে। সোফায় বসে টার্গেটকৃতের সাথে স্বভাব ভঙ্গিতে সখ্যতা গড়ে তুলে, তারপর একটু সময়ের জন্য মোবাইল নিয়ে কথা বলা শুরু করে।একপর্যায়ে মোবাইল মালিকের দৃস্টির আড়াল হয়ে। মোবাইল নিয়ে দ্রুত ঘটনাস্থল ত্যাগ করে।

ছিনতাইয়ের শিকার কিশোর  মোঃ জাহেদ সিপ্লাসকে বলেন, আমার সাথে সখ্যতা গড়ে তার বউয়ের সাথে কথা বলার কথা বলে মোবাইল নিয়ে দুই তিনবার কথা বলে।কিছুক্ষন পর কথা বলা নাম্বারে ফোন করলে আমি তাকে ডেকে মোবাইল ফোনে কথা বলতে বলি। কথা বলতে বলতে এক পর্যায়ে ছিনতাইকারী  উধাও হয়ে যায়। তাকে অনেক্ষন খোঁজাখুজির পরও আর পাইনি। পরে চান্দগাঁও থানায় সাধারণ ডায়েরী করলেও  আজ পর্যন্ত এর কোন প্রতিকার পায়নি।

মোবাইল ছিনতাইয়ের ঘটনাস্থল মোহনা কমিউনিটি হলের ম্যানজার জয়নুল আবেদীন সিপ্লাসকে বলেন, আমাদের নোটিশ টাঙ্গানো আছে।তারপরও দুর্ভাগ্যবশত অভিনব কায়দায় অতিথিদের ধোকা দিয়ে ছিনতাইকারীরা মোবাইল নিয়ে যায়।

তিনি আরো বলেন, প্রায়শ কমিউনিটি সেন্টারগুলোতে মেহমান সেজে ছিনতাইকারীরা সক্রিয় বলে শুনি। অতিথিরা সর্তক হলে ছিনতাইকারীরা নিষ্ফল হবে বলেও জানান তিনি।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে চান্দগাঁও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবুল কালাম সিপ্লাসকে জানান, অভিযোগের বিষয়ে তদন্ত করে ছিনতাইকারীকে সনাক্ত করে মোবাইল উদ্ধারে আপ্রাণ চেষ্ঠা চালিয়ে যাচ্ছি। আশা করি শীঘ্রই এর একটা সমাধান পাওয়া যাবে বলেও জানান তিনি।

প্রসঙ্গত: গত ২৩ অগাস্ট জিইসি মোড়ে ছিনতাইয়ের ঘটনা নিয়ে সিপ্লাসটিভিতে`নেতাপরিচয় দিয়ে অভিনব কায়দায় মোবাইল ছিনতাই’ শিরোনামে প্রতিবেদন প্রচারিত হলেও পুলিশের ধরা ছোঁয়ার বাইরে রয়েছে সেই কথিত নেতা পরিচয় দানকারী ছিনতাইকারী।