সংঘাতের আগুনে জ্বালানি ঢালছে যুক্তরাষ্ট্র: রাশিয়া

Picture: Collected
CPLUSTV
CTG NEWS
CPLUSTV
শেয়ার করুন

সিপ্লাস ডেস্ক: ইউক্রেনে উন্নত রকেট ব্যবস্থা এবং যুদ্ধাস্ত্র সরবরাহের মার্কিন সিদ্ধান্তের তীব্র সমালোচনা করেছে রাশিয়া। একই সঙ্গে এই অস্ত্র সরবরাহের মাধ্যমে ওয়াশিংটনের সঙ্গে মস্কোর সরাসরি সংঘাতের ঝুঁকি বৃদ্ধি পেয়েছে বলে সতর্ক করে দিয়েছে।

বুধবার (১ জুন) সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে ক্রেমলিনের মুখপাত্র দিমিত্রি পেশকভ বলেন, আমরা বিশ্বাস করি যে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ইচ্ছেকৃত এবং উদ্দেশ্যপ্রণোদিত হয়ে যুদ্ধের আগুনে জ্বালানি যোগ করছে।

রাশিয়ান ভূখণ্ডে হামলা চালানোর জন্য যুক্তরাষ্ট্রের সরবরাহকৃত অস্ত্র যদি ইউক্রেন ব্যবহার করে তাহলে প্রতিক্রিয়া কেমন হবে— প্রশ্নের জবাবে পেশকভ বলেন, সবচেয়ে খারাপ পরিস্থিতি সম্পর্কে কথা না বলি।

গত ২৪ ফেব্রুয়ারি নব্য-নাৎসিমুক্ত ও রুশ ভাষাভাষীদের নিপীড়নের হাত থেকে বাঁচানোর লক্ষ্যে ইউক্রেনে সামরিক অভিযান শুরু করে রাশিয়া। ফেব্রুয়ারিতে শুরু হওয়া যুদ্ধ তিন মাসের বেশি সময় ধরে চললেও এখন পর্যন্ত অবসানের কোনও ইঙ্গিত পাওয়া যাচ্ছে না। এদিকে, যুদ্ধে সহায়তার লক্ষ্যে ইউক্রেনকে বিভিন্ন ধরনের অস্ত্র সরবরাহ অব্যাহত রেখেছে পশ্চিমা বিভিন্ন দেশ।

এর অংশ হিসেবে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ইউক্রেনের জন্য নতুন অস্ত্র সহায়তা প্যাকেজ ঘোষণা করেছেন। ইউক্রেন থেকে রুশ ভূখণ্ডে দূরপাল্লার নিখুঁত নিশানায় আঘাত হানতে সক্ষম এমন উন্নত রকেট ব্যবস্থা সরবরাহে রাজি হয়েছেন তিনি।

যুক্তরাষ্ট্রের জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তারা বলেছেন, রাশিয়ার ভেতরে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালাতে মার্কিন অস্ত্র ব্যবহার করা হবে না বলে ইউক্রেন প্রতিশ্রুতি দিয়েছে। এই প্রতিশ্রুতির পর ৮০ কিলোমিটার দূরে আঘাত হানতে পারে ইউক্রেনে এমন রকেট সরবরাহে রাজি হয়েছে ওয়াশিংটন।