‘শনিবার বিকেল’: জাজের খোলা চিঠি

ছবি: সংগৃহীত
CPLUSTV
CTG NEWS
CPLUSTV
শেয়ার করুন

সিপ্লাস ডেস্ক: জনপ্রিয় নির্মাতা মোস্তফা সরয়ার ফারুকীর নতুন সিনেমা ‘শনিবার বিকেল’। কয়েকটি আন্তর্জাতিক পুরস্কার অর্জন করলেও দেশের দর্শক সিনেমাটি দেখতে পারেননি। কেননা মুক্তির অনুমতি পায়নি সিনেমাটি। এ প্রসঙ্গে দুদিন আগে আক্ষেপ করে ফেসবুকে পোস্ট দেন নির্মাতা। এবার প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান জাজ মাল্টিমিডিয়া থেকে একটি খোলা চিঠি প্রকাশ করা হয়েছে তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদের উদ্দেশে।

‘‘…জাজ মাল্টিমিডিয়া প্রযোজিত এবং মোস্তফা সরোয়ার ফারুকি পরিচালিত ‘শনিবার বিকেল’ সিনেমাটি দীর্ঘ দিন সেন্সরে আটকে আছে। কিন্তু সেন্সর বোর্ড কেন আটকে রেখেছে, তা এখনো অফিসিয়ালি আমাদের জানায় নাই। আপনি হয়তো জানেন, শনিবার বিকেল সিনেমাটি এক শটে নির্মিত একটি সিনেমা যা বিশ্বে এর আগে হয়েছে হাতে গোনা। এ ছাড়া ‘শনিবার বিকেল’ সিনেমাটি মস্কো ফিল্ম ফেস্টিভালে রাশিয়ান ক্রিটিক ফেডারেশনের বিচারে বেস্ট ফিল্ম হিসাবে নির্বাচিত হয়েছে। এ ছাড়াও আরও বিভিন্ন দেশের ফেস্টিভাল থেকে পুরস্কৃত হয়েছে।

জাজ মাল্টিমিডিয়া এ পর্যন্ত ৪১টি সিনেমা তৈরি করেছে এবং মুক্তি দিয়েছে। আমাদের কোনো সিনেমা দেশ বা ধর্মবিরোধী কোনো বক্তব্য বা সংলাপ থাকে না। এ ব্যাপারে আমরা যথেষ্ট সচেতন। আমারা দৃঢ়তার সাথে বলতে পারি, ‘শনিবার বিকেল’ সিনেমাটিতেও কোনো দেশবিরোধী বা ধর্মবিরোধী কিছু নেই। বরং এই সিনেমাটিতে আমাদের ধর্ম ও আমাদের দেশের সাংস্কৃতিকে সুন্দর ভাবে উপস্থাপন করা হয়েছে।এখানে উল্লেখ করছে যে  বিশ্বখ্যাত পত্রিকা “The Hollywood Reporter” ‘শনিবার বিকেল’ সিনেমাটি দেখে লিখেছে: ‘এই সিনেমাটি বাংলাদেশে ব্যান করা হয়েছে, বাংলাদেশের ইমেজ ক্ষুণ্ণ হওয়ার আশংকায়, কিন্তু ছবিটি দেখে আমাদের উপলব্ধি হলো, সিনেমাটি বাংলাদেশের ইমেজ বৃদ্ধি করবে, কমাবে না।’’

খোলা চিঠিতে তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদকে সিনেমাটি দেখার অনুরোধ করে উল্লেখ করা হয়েছে: ‘আপনি দেখলে এই সিনেমাটি অনায়েসে সেন্সর সার্টিফিকেট পেয়ে যাবে বলে আমরা বিশ্বাস করি। চলচ্চিত্রের এই ক্রান্তি লগ্নে, সুবাতাস বইতে শুরু করেছে। সেই ধারা অব্যাহত রাখতে, সিনেমা হলে ‘শনিবার বিকেল’ সিনেমাটি মুক্তি দেয়া আশু প্রয়োজন।’