লজ্জা থাকলে রেলমন্ত্রীর উচিত পদত্যাগ করা: মান্না

ছবি: সংগৃহীত
CPLUSTV
CTG NEWS
CPLUSTV
শেয়ার করুন

সিপ্লাস ডেস্ক:রেলমন্ত্রীর আত্মীয়কে জরিমানা করা টিটিইকে শাস্তি দেওয়ার প্রতিবাদ জানিয়ে নাগরিক ঐক্যের সভাপতি মাহমুদুর রহমান মান্না বলেছেন, ‘নিষ্ঠার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করা এখন এই দেশে অপরাধ। অনিয়মকেই নিয়মে পরিণত করেছে অবৈধ ক্ষমতাসীনরা। এভাবে সরকার পুরো রাষ্ট্রব্যবস্থা ধ্বংস করে দিচ্ছে। ন্যূনতম লজ্জা থাকলে রেলমন্ত্রীর এই মুহূর্তে পদত্যাগ করা উচিত। একজন দায়িত্বশীল কর্মকর্তাকে হয়রানি করার জন্য সরকারকে ক্ষমা চাইতে হবে।’

শনিবার এক বিবৃতিতে তিনি আরও বলেন, ‘যে ঘটনায় একজন কর্মকর্তার পুরস্কৃত হওয়ার ঘটনা, সেখানে তাকে বরখাস্ত করা হয়েছে। এমনকি কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়া হয়েছে। এই সরকার আর তাদের মদদপুষ্টরা দেশকে তাদের বাপ-দাদার সম্পত্তি বলে মনে করে। এজন্য রেলমন্ত্রীর আত্মীয়ের কাছে জরিমানাসহ ট্রেনের ভাড়া আদায় করায় পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের টিটিই শফিকুল ইসলামকে বরখাস্ত করা হয়েছে।’

দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) উপসহকারী পরিচালক শরীফ উদ্দিনের বরখাস্তের ঘটনা উল্লেখ করে মান্না বলেন, ‘ক্ষমতাসীনরা গোটা রাষ্ট্রকে গিলে খেতে চায়। ভোট ডাকাতির মাধ্যমে অবৈধভাবে ক্ষমতায় গিয়ে তারা নিজেদের মতো রাষ্ট্রব্যবস্থাকেও নীতিহীন হিসেবে প্রতিষ্ঠা করার চেষ্টা করছে। কিন্তু শফিকুল ইসলাম বা শরীফ উদ্দিনের মতো মানুষদের জন্য এখনও এই দেশে নীতির চর্চা হয়, আদর্শের চর্চা হয় যা এই সরকার সহ্য করতে পারে না।’

তিনি বলেন, ‘রেলমন্ত্রীর মতো পুরো সরকারই বেহায়া, নির্লজ্জ। জনগণের কাছে তাদের ন্যূনতম দায়বদ্ধতা নেই। কাজেই তারা পদত্যাগ করবে না; বরং দেশকে একটি নীতি, আদর্শহীন রাষ্ট্র হিসেবে প্রতিষ্ঠা করবে। সব ধ্বংস করে ফেলার আগেই এই সরকারের মূলোৎপাটন করতে হবে। সকল বিরোধী শক্তির ঐক্যবদ্ধ আন্দোলনের মাধ্যমে ক্ষমতাসীনদের পদত্যাগে বাধ্য করতে হবে।’