রোহিঙ্গাদের ভোটার হতে সহযোগীতা করায় ইসি কর্মচারীসহ আটক ৩

CPLUSTV
CTG NEWS
CPLUSTV
শেয়ার করুন

রোহিঙ্গাদের ভোটার হতে সহযোগিতা করার অভিযোগে নির্বাচন কমিশনের (ইসি) এক কর্মচারীসহ তিনজনকে আটক করা হয়েছে।

সোমবার (১৬ সেপ্টেম্বর) রাত ১১টার দিকে জেলা নির্বাচন কার্যালয় থেকে তাদের আটক করা হয়।

আটককৃত তিনজনের মধ্যে একজন ইসির অফিস সহায়ক জয়নাল আবেদীন।তিনি জেলা নির্বাচন কার্যালয়ে ডবলমুরিং থানা নির্বাচন অফিসে কর্মরত ছিলেন।

এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত বাকি দু’জনের পরিচয় পাওয়া যায়নি।

জেলা নির্বাচন কার্যালয় সূত্র জানা যায়, রোহিঙ্গাদের ভোটার হতে সহযোগীতার অভিযোগ পাওয়ায় সোমবার সকাল থেকে জয়নাল আবেদীনকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। পরে রাতে তাকেসহ আরও দুইজনকে আটক করা হয়।

জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা (সিনিয়র) মো. মুনীর হোসাইন খান জানান, দুই দিন ধরে আটকদের নজরদারিতে রাখা হয়েছে।মামলার প্রস্তুতি চলছে।

সূত্র আরও জানায়, জালিয়াতির মাধ্যমে লাকী নাম দিয়ে রমজান বিবি নামে এক রোহিঙ্গা নারী হাটহাজারীর বাসিন্দা উল্লেখ করে এনআইডি করিয়ে নেয়। পরবর্তীতে স্মার্ট কার্ড উত্তোলনের জন্য ওই রোহিঙ্গা নারী ১৮ আগস্ট জেলা নির্বাচন অফিসে যান। সন্দেহ হলে ইসির কর্মকর্তারা হাটহাজারী নির্বাচন কার্যালয় এ বিষয়ে খোঁজখবর নিলে জানা যায়, লাকী নামে কোনো ভোটারের নথি তাদের অফিসে নেই। তবে তার তথ্য সার্ভারে ছিল।

এরপর রমজান বিবিকে পুলিশে সোপর্দ করা হয়।

হাটহাজারী থানা নির্বাচন কর্মকর্তা আরিফুল ইসলাম এ ঘটনায় নগরের কোতোয়ালী থানায় মামলা করেন। এরপর ইসিসহ সরকারি একাধিক সংস্থা রোহিঙ্গারা কীভাবে ভোটার হচ্ছেন সেটি অনুসন্ধানে মাঠে নামে।মূলত অনুসন্ধানের কারনেই নির্বাচন অফিসের কর্মচারীসহ জড়িতদের আটক করা হয়।