রোববার সারা দেশে ছাত্রদলের বিক্ষোভ

CPLUSTV
CTG NEWS
CPLUSTV
শেয়ার করুন

দেশের সব জেলা, মহানগর, বিশ্ববিদ্যালয় ইউনিটগুলোতে আগামী রোববার বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশের ঘোষণা দিয়েছে ছাত্রদল।

বৃহস্পতিবার সংগঠনটির সভাপতি ফজলুর রহমান খোকন ও সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন শ্যামল স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, ছাত্রদলের ৪১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর পূর্বনির্ধারিত কর্মসূচিতে বুধবার দেশব্যাপী আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ও ছাত্রলীগের হামলার প্রতিবাদে এই বিক্ষোভ মিছিল এবং সমাবেশ হবে।

এদিকে বৃহস্পতিবার সকালে রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপি কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের নিচতলায় ছাত্রদলের উদ্যোগে সংগঠনটির ৪১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে ফ্রি ব্লাড গ্রুপিং ও স্বেচ্ছায় রক্তদান কর্মসূচি পালিত হয়।

এ কর্মসূচির উদ্বোধন করেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। ছাত্রদলের সভাপতি ফজলুর রহমান খোকনের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন শ্যামলের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন- বিএনপি জাতীয় নির্বাহী কমিটির সহ-স্বাস্থ্যবিষয়ক সম্পাদক ডা. রফিকুল ইসলাম, ছাত্রদলের সহ-সভাপতি মাজেদুল ইসলাম রুম্মন, সিনিয়র যুগ্ম-সম্পাদক আমিনুর রহমান আমিন, যুগ্ম-সম্পাদক মহিন উদ্দিন রাজু, তবিবুর রহমান সাগর, এবিএম মাহমুদ সরদার, সহ-সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম, শাহাদাত হোসেন, সুলতানা জেসমিন জুঁই, সাংগঠনিক সম্পাদক সাইফ মাহমুদ জুয়েল, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক তৌহিদ আউয়াল, মশিউর রহমান রনি, সহ-দফতর সম্পাদক আজিজুল হক সোহেল প্রমুখ।

এ সময় এক সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে রুহুল কবির রিজভী বলেন, এই সরকারের শাসনের নীতি গুম, খুন ও বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ডের বিভীষিকার মুখেও ছাত্রদল শিক্ষা ও গণতন্ত্রের আদর্শের অঙ্গীকারে এগিয়ে যাচ্ছে। সরকারের ব্যর্থতায় রোহিঙ্গা সমস্যার সমাধান প্রশ্নে বর্তমান নতজানু সরকার কিছুই করতে পারেনি। এর ওপর ভারতে এনআরসির কারণে বাংলাদেশে আরেকটি সংকট ঘনীভূত হতে পারে। মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বিক্রেতা আওয়ামী লীগ সরকার কেবলমাত্র ক্ষমতার জন্য দেশের স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্বকে দুর্বল করে পরদেশের মুখাপেক্ষী হয়ে পড়েছে। সেজন্য আওয়ামী সরকার গণতন্ত্রকে লাশ বানিয়ে বিরোধী দলমতশূন্য বাংলাদেশ গড়ে তুলতে চাচ্ছে বাকশালী নব্য সংস্করণে।

তিনি বলেন, খালেদা জিয়াকে প্রতিহিংসার কারণে অন্যায়ভাবে মিথ্যা মামলা জড়িয়ে কারাবন্দি করে রাখা হয়েছে। যেন তার নেতৃত্বে কেউ বর্তমান সরকারের অবৈধ শাসন নিয়ে টু শব্দ উচ্চারণ করতে না পারে। শেখ হাসিনা তার অবৈধ শাসন দখলে রাখার জন্যই দেশনেত্রীকে কারাগারে আটকে রেখেছেন। কিন্তু জনগণ দেশনেত্রীকে মুক্ত করতে এখন দৃঢ় সংকল্পবদ্ধ। যে কোনো মুহূর্তে এই অবৈধ সরকারের পতন হবে।

এ সময় ছাত্রদল শত নির্যাতনের মুখেও আরও বলীয়ান হয়ে দেশনেত্রীর মুক্তি আন্দোলনকে বেগবান করবে বলেও আশা করেন বিএনপির এই সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব।