রুমায় বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টে পাইন্দু ইউপি একাদশ চাম্পিয়ন

CPLUSTV
CTG NEWS
CPLUSTV
শেয়ার করুন

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলায় ২নং রুমা ইউপি একাদশকে পেনাল্টিতে ৩-৪ গোলে হারিয়ে পাইন্দু ইউপি একাদশ চাম্পিয়ন হয়েছে।

উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে বৃহস্পতিবার (১৯সেপ্টেম্বর) বিকেল চারটায় রুমা আবাসিক উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে বালক অনুর্ধ-১৭ দলের বঙ্গবন্ধু ফুটবল টুর্নামেন্টের এই ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত হয়।

খেলার শুরুতে দুই দলের খেলোয়াড়রা হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ে তাদের খেলার ফলাফল সমতা টানতে থাকে। এভাবে হাড্ডাহাড্ডির মধ্যে উভয় দল প্রতিপক্ষের জালে একাধিবার বল ফেলতে চেষ্টা করে। তবে উভয় দলের রক্ষনভাগের শক্ত অবস্থানের কারণে কোনো পক্ষের জালে ফেলতে সক্ষম হয়নি বল। প্রতিপক্ষের জালে যখন বল ফেলার উভয় দলে আপ্রাণ প্রচেষ্টায় মরিয়া হয়ে ওঠে। ঠিক তখন উইংসহ দুই ডিফেন্সকে পাশ কাটিয়ে একক ক্যারিংয়ে ১১নাম্বার জার্সি পরিহিত খেলোয়াড় মেনেসে বম পাইন্দু ইউপি একাদশের জালে বল ফেলতে সক্ষম হয়। ফলে প্রথমার্ধে ১২মিনিটের মাথায় পাইন্দু ইউপি একাদশকে০ -১গোলে এগিয়ে নেয় রুমা সদর ইউপি একাদশ।

তখনই খেলার মাঠে চারিদিকে কানায় কানায় সমর্থক-দর্শক ভর্তি লোকজন চিল্লা-চিল্লি, গর্জিত চিৎকারের মধ্যে পাইন্দু ইউপি একাদশ খেলোয়াড়রাও প্রতিপক্ষের জালে আক্রমণ কম করেনি। রক্ষণ ভাগের শক্ত অবস্থানে রুমা ইউপি একাদশের। তাই প্রথমার্ধে ফলাফল ১-০গোলে পিছিয়ে পড়ে পাইন্দু ইউপি একাদশ।

খেলার দ্বিতীয় মার্ধে শুরুতে পাইন্দু ইউপি একাদশের ১১নাম্বার জার্সি পরিহিত খেলোয়াড় জ্যোনি খিয়াং লং কিকে প্রতিপক্ষ জালে বল ফেলে । এতে ফলাফল সমতা আনে দুই দলের।

এদিকে রুমা সদর ইউপি একাদশের খেলোয়াড়দের মাঝে উত্তেজনা দেখা দেয়। প্রতিপক্ষ দলের খেলোয়াড়কে ফ্রি কিক করে। সাথে সাথে ফাউলের বাশি । রুমা ইউপি একাদশের একাধিক খেলোয়াড়কে হলুদ কার্ড দেখিয়ে সতর্ক করে দেন রেফারী দিলীপ কুমার দেয়।
উভয় দলের হাড্ডা হাড্ডি লড়াইয়ে নির্ধারিত সময়ে খেলার ফলাফল সমতা থাকায় গোল্ডেন গোলের জন্য আরো ১০মিনিট সময় বাড়িয়ে দেয়। এতে উভয় দল কোনো গোল করতে পারেনি। সর্বশেষ পেনাল্টিতে রুমা সদর ইউপি একাদশকে ৩-৪গোলে হারিয়ে বঙ্গবন্ধু জাতীয় ফুটবল টুনামেন্টের ফাইনাল খেলায় বিজয়ী হয় পাইন্দু ইউপি একাদশ।
পরে বঙ্গবন্ধু জাতীয় ফুটবল টুনামেন্টের ফাইনাল খেলায় বিজয়ী ও বিজিত দলের মাঝে পুরস্কৃত করেন উপজেলা চেয়ারম্যান উহ্লাচিং মারমা ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ শামসুল আলম। এসময় উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান থাংখামলিয়ান বম, রুমা সাঙ্গু সরকারি কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ সুইপ্রুচিং মারমা, উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা অঞ্জন চক্রবর্তী, পাইন্দু ইউপি চেয়ারম্যান উহ্লামং মারমা, রুমা সদর ইউপি চেয়ারম্যান শৈমং মারমা শৈবং, আওয়ামীলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও ম্যাচ কমিটি সভাপতি সাংপুই বম ও ঘোনা পাড়া চিত্ররথ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মংমং মারমা সহ বিভিন্ন ক্রীড়া সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে জাতীয় গোল্ডকাপ ফুবল টুর্নামেন্টে দর্শক ও সমর্থকেরা মাঠের কানায় কানায় চারদিকে জমেছিল। তার মধ্যে নারীর উপস্থিতিও লক্ষণীয়।

অন্যদিকে পাইন্দু ইউপি চেয়ারম্যান উহ্লামং মারমা বলেন বঙ্গবন্ধু ফুটবল টুর্নামেন্ট ২০১৮সালেও ফাইনাল খেলায় তার পাইন্দু ইউপি একাদশ চাম্পিয়ন হয়েছিল। ২০১৯সালে এসে এবারও চাম্পিয়ন। খেলা-ধুলায় যেমনি পাইন্দু ইউনিয়ন এগিয়ে রয়েছে ঠিক তেমনি সাংস্কৃতিক সরজ্ঞাম সহ বিদ্যুৎ বিহীণ দুর্গম এলাকায় সাধারণ মানুষের পরিবার গুলোকে সোলার প্যানেল বিতরণের ক্ষেত্রেও অন্য তিন ইউনিয়নের অপেক্ষায় এগিয়ে আছে বলে দাবি করেন চেয়ারম্যান উহ্লামং মারমা।