রাঙ্গুনিয়ায় চাঞ্চল্যকর প্রবাসী ইউসুফ হত্যা মামলার আসামিকে ধরে পুলিশে দিল জনতা

দেশীয় অস্ত্র হাতে গ্রেফতার মুবিন।
CPLUSTV
CTG NEWS
CPLUSTV
শেয়ার করুন

রাঙ্গুনিয়া প্রতিনিধি: রাঙ্গুনিয়া উপজেলার রাজানগর ইউনিয়নের প্রবাসী মোহাম্মদ ইউসুফ আলী (৪৫) হত্যা মামলার আসামি মো. মুবিনকে (২০) ধরে পুলিশে দিয়েছে স্থানীয় উৎসুক জনসাধারণ।

সোমবার (১১ জুলাই) রাতে ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ড শিয়ালবুক্কা গ্রামে আত্মীয়ের বাড়িতে আসার খবর পেয়ে এলাকাবাসী তাকে ঘিরে ফেলে। পরে তাকে ধরে পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়। গ্রেফতার মুবিন একই ইউনিয়নের বগাবিলি গ্রামের মো. ইউসুফের ছেলে।

মঙ্গলবার (১২ জুলাই) দুপুরে তাকে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়।

জানা যায়, গত বছরের ১ নভেম্বর রাঙ্গুনিয়ার রাজানগর ইউনিয়নে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। ওই ইউনিয়নের ৩ নম্বর ওয়ার্ডে মেম্বার প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন বর্তমান মেম্বার তৈয়ব ও আজগর আলী। নির্বাচনে আজগর আলী পরাজিত হন। এ কারণেই আজগর আলীর মনে ক্ষোভ সৃষ্টি হয় এবং তৈয়ব মেম্বারের সঙ্গে শত্রুতা বাড়তে থাকে। এই ক্ষোভ থেকে আজগর আলী তৈয়ব মেম্বারের ওপর বেশ কয়েকবার হামলা করেন। সর্বশেষ তৈয়ব মেম্বারের প্রবাসী ভাই ইউসুফ আলীর উপর হামলা চালিয়ে তাকে নির্মমভাবে হত্যা করা হয়।

ঘটনার দিন গত ২ ফেব্রুয়ারি স্থানীয় রানিরহাট বাজার থেকে বাড়ি ফিরছিলেন প্রবাসী ইউসুফ। তিনি বগাবিলি ব্রিজের কাছে পৌঁছাতেই ঘাতকরা তার ওপর হামলে পড়ে। ধারালো অস্ত্র দিয়ে ইউসুফের হাত-পা, মাথাসহ শরীরের বিভিন্নস্থানে গুরুতর জখম করে।

এরপর স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে ভর্তি করেন। অবস্থার অবনতি হলে তাকে চট্টগ্রামের কয়েকটি বেসরকারি হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) চিকিৎসা দেওয়া হয়। চিকিৎসাধীন অবস্থায় ১২ ফেব্রুয়ারি ভোর ৫টায় ইউসুফ মারা যান।

হামলার ঘটনার পর ৬ ফেব্রুয়ারি ইউসুফের স্ত্রী বাদী হয়ে রাঙ্গুুনিয়া থানায় একটি মারধর ও নির্যাতনের মামলা দায়ের করেন। ইউসুফ মারা যাওয়ার পর এটিকে হত্যা মামলা হিসেবে তদন্ত শুরু করে পুলিশ।

রাঙ্গুনিয়া থানার ওসি মো. মাহবুব মিলকী গ্রেফতারের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, প্রবাসী ইউসুফ আলী হত্যার দায়ে অভিযুক্ত আসামি মুবিনকে গ্রেফতার করে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। এই ঘটনায় এখন পর্যন্ত জেল হাজতে আছে আজগর আলী, তৌহিদুল ইসলাম মামুন, সাগর, আলমগীর, আবু বক্কর এবং সর্বশেষ মুবিন। পলাতক রয়েছে টিপু, নেজাম, মাহবুবুল, তালেব, আইয়ুব আলী খান। তাদের ধরতে পুলিশ চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।