রাঙামাটি শহরের ভেদভেদীতে প্রশাসনের ১৪৪ ধারা জারি

রাঙামাটি শহরের ভেদভেদীতে প্রশাসনের ১৪৪ ধারা জারি
CPLUSTV
CTG NEWS
CPLUSTV
শেয়ার করুন

আলমগীর মানিক, রাঙামাটি প্রতিনিধি: রাঙামাটির কাপ্তাই, লংগদু উপজেলার পর এবার রাঙামাটি সদর উপজেলাধীন ভেদভেদী ও এর আশেপাশের এলাকায় ১৪৪ ধারা জারি ঘোষণা দিয়েছে স্থানীয় প্রশাসন।

দেশের বৃহত্তর দুইটি প্রধান রাজনৈতিক দল আওয়ামীলীগ ও বিএনপির পক্ষ থেকে একই স্থানে একই সময়ে রাজনৈতিক কর্মসূচী পালনের ঘোষণা দেওয়ায় জনজীবনের অসুবিধা ও উপজেলার স্বাভাবিক শান্তি-শৃঙ্খলা বিঘ্নিত হওয়ার আশঙ্কা থাকায় জনস্বার্থে এলাকার শান্তিপূর্ণ পরিবেশ অক্ষুন্ন রাখার স্বার্থে রাঙামাটি সদর উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে উপজেলার নির্বাহী অফিসার ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিষ্ট্রেট নাজমা বিনতে আমিন তার প্রাপ্ত ক্ষমতাবলে মঙ্গলবার (৩০ আগষ্ট) সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত ভেদভেদী এলাকায় ১৪৪ ধারা জারির ঘোষণা দেন।

মঙ্গলবার দিবাগত মধ্যরাত ১.১৫ মিনিটের সময় ইউএনও সদর ফেসবুক একাউন্টের টাইমলাইনে এই সংক্রান্ত ঘোষনাপত্র প্রকাশ করা হয়।

উক্ত ঘোষণা পত্রে উল্লেখিত তথ্যাদি হুবহু নিচে দেওয়া হলো:

“ফৌজদারী কার্যবিধির ১৪৪ ধারা অনুযায়ী ঘোষণা”

যেহেতু আগামী ৩০.০৮.২০২২ খ্রিঃ তারিখে রাঙ্গামাটি সদর উপজেলার পৌরসভাস্থ ভেদভেদী বাজার এলাকায় জ্বালানী তেল, পরিবহন ভাড়া ও নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির ঘোষিত কর্মসূচীর অংশ হিসেবে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি এবং অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের উদ্যোগে বিক্ষোভ সমাবেশের প্রস্তুতি গ্রহণ করেছেন।

অন্যদিকে একই স্থানে, একই তারিখ ও সময়ে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ, রাঙ্গামাটি জেলা শাখা এবং এর অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের উদ্যোগে সভা ও সমাবেশের আয়োজন করবেন মর্মে সংবাদ পাওয়া গেছে।

এবং যেহেতু আমার নিকট এ মর্মে অনুমিত হচ্ছে যে, আগামী ৩০.০৮.২০২২ খ্রিঃ তারিখে রাঙ্গামাটি সদর উপজেলার পৌরসভাস্থ ভেদভেদী বাজার এলাকায় একই স্থানে একই তারিখ ও সময়ে বাংলাদেশের দুইটি বৃহত্তর রাজনৈতিক দলের আহুত কর্মসূচির কারণে জনজীবনের অসুবিধা ও উপজেলার স্বাভাবিক শান্তি শৃঙ্খলা বিঘ্নিত হওয়ার আশংকা রয়েছে।

এবং যেহেতু জনস্বার্থে এ এলাকায় শান্তিপূর্ণ পরিবেশ অক্ষুন্ন রাখা অপরিহার্য।

সেহেতু আমি নাজমা বিনতে আমিন, উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট, রাঙ্গামাটি সদর, রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা আমার উপর অর্পিত ক্ষমতাবলে আগামী ৩০.০৮.২০২২ খ্রিঃ তারিখ সকাল ৬.০০ ঘটিকা হতে সন্ধ্যা ৬.০০ ঘটিকা পর্যন্ত রাঙ্গামাটি সদর উপজেলার পৌরসভাস্থ ভেদভেদী বাজার ও তার আশেপাশের এলাকায় সকল প্রকার সভা সমাবেশ, মিছিল মিটিং, লোক সমাগম এবং চার বা ততোধিক ব্যক্তির একত্রে চলাচল ও আইন-শৃঙ্খলা পরিপন্থী সকল অবৈধ কার্যক্রম নিষিদ্ধ ঘোষণা করে অত্র উল্লিখিত স্থানে ১৮৯৮ সালের ফৌজদারী কার্যবিধির ১৪৪ ধারা জারী করলাম।

এ আদেশ সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারী, জরুরী সেবা, স্বাভাবিক কাজে নিয়োজিত এবং আইন-শৃঙ্খলা রক্ষার কাজে জড়িত ব্যক্তিবর্গের জন্য প্রযোজ্য হবে না।

প্রসঙ্গতঃ এর আগে ২৮ তারিখে রাঙামাটির কাপ্তাই উপজেলায় এবং পরবর্তীতে পরেরদিন ২৯শে আগষ্ট সোমবার লংগদু উপেজলায় বিএনপি ও ক্ষমতাসীন দল আওয়ামীলীগের পক্ষ থেকে একই স্থানে রাজনৈতিক কর্মসূচীর আহবান করলে স্থানীয় প্রশাসনের পক্ষ থেকে সংশ্লিষ্ট্য উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাগণ ১৪৪ ধারা জারি করেন। এই নিষেধাজ্ঞার ফলে উক্ত এলাকাগুলোতে আওয়ামীলীগ-বিএনপির নেতাকর্মীরা তাদের পূর্বঘোষিত রাজনৈতিক কর্মসূচী পালন থেকে বিরত থাকায় কোনো ধরনের হানাহানি ঘটেনি।

এবছর প্রথমবারের মতো রাজনৈতিক সংঘর্ষের সূত্রপাত ঘটেছে রাঙামাটির বাঘাইছড়ি উপজেলায়। চলতি সপ্তাহের ২৬শে আগষ্ট বাঘাইছড়িতে সংগঠিত এই সংঘর্ষে আমতলী ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের নেতা রাসেল চৌধূরী ও ছাত্রদলের নেতা আল-আমিনসহ উভয়দলের অন্তত ১৫জন নেতাকর্মী আহত হয়েছে। এই ঘটনায় বেশ কয়েকটি মোটর সাইকেলও ভাংচুর করা হয়েছে।