যুবলীগের পদ ঠেকাতে মিজানুর রহমানের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন

ছবি: সিপ্লাসটিভি.নিউজ
CPLUSTV
CTG NEWS
CPLUSTV
শেয়ার করুন

সন্দ্বীপ প্রতিনিধি: সন্দ্বীপের মাইটভাঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মিজানুর রহমানের বিরুদ্ধে জমি দখলের মিথ্যা অপপ্রচার করা হচ্ছে দাবি করে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। হোসনে আরা বেগম নামে এক নারী এই সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেন।

মঙ্গলবার (২ আগস্ট) দুপুর ১২ টায় চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবে এই সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

সংবাদ সম্মেলনে বাক-প্রতিবন্ধী হোসনে আরা বেগমের উপস্থিতিতে তার পক্ষে লিখিত বক্তব্যে তার কণ্যা রহিমা বেগম বলেন, “গতকাল ১ আগস্ট (সোমবার) মাজাহারুল ইসলাম নামে একজন সংবাদ সম্মেলন করে দাবি তুলেছেন মিজানুর রহমান মিজান এবং তার ভাই মাকসুদুর রহমান তাদের জমি অবৈধভাবে দখল করেছে। আসলে তাদের এই বক্তব্য অসত্য। বিএস খতিয়ানের ২০২১২ দাগের ওই জমি ১৯৮০ সালে আমার বাক-প্রতিবন্ধী মা হোসনে আরা বেগমকে তার ভাই-বোনেরা রেজিষ্ট্রি করে দান করেন । পরে ২০১৬ সালে আমরা মিজানুর রহমান ও মাকসুদুর রহমানের নিকট জমিটি সাফ কবলায় বিক্রি করি।

সম্মেলনে হোসনে আরা বেগম, তার কণ্যা রহিমা বেগম, জামাতা নুরজামান বেচন, মাইটভাঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান-১ গোলাম কিবরিয়া মঞ্জুর, কাজী আরিফুর রহমান মেহেরাজ মেম্বার উপস্থিত ছিলেন।

দুপুর ১ টায় একই স্থানে উত্তর জেলার পদ ঠেকাতে লায়ন মোহাম্মদ মিজানুর রহমান মিজানের বিরুদ্ধে বিভিন্ন ধরনের ষড়যন্ত্র ও অপপ্রচার করার অভিযোগ করা হয়েছে অভিযোগ তুলে সংবাদ সম্মেলন করেছেন মাইটভাঙ্গা ইউনিয়ন যুবলীগ।

সংবাদ সম্মেলনে মাইটভাঙ্গা ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি আবদুর রহিম শিবলি বলেন, “চট্টগ্রাম উত্তর জেলা আওয়ামী যুবলীগের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক লায়ন মোহাম্মদ মিজানুর রহমান মিজান ও তার ছোট ভাই সন্দ্বীপ উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মাকছুদুর রহমানের বিরুদ্ধে সম্পূর্ণ মিথ্যা, ভুয়া এ রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত নানা ধরনের অপপ্রচার করা হচ্ছে।”

তিনি আরো বলেন, “মিজানুর রহমানের চেয়ারম্যান সফলতা অর্জন করায় সরকারী ও বেসরকারী বিভিন্ন সংস্থা থেকে বেশ কয়েক বার পুরস্কৃত হয়েছেন। তিনি ইউনিয়নবাসীর নিকট একজন সফল ও জনপ্রিয় চেয়ারম্যান হিসেবে ব্যাপক পরিচিত।”

সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ করা হয়, মিজানুর রহমান মিজান উত্তর যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী হওয়ার পর থেকে যুবলীগের পদ ঠেকাতে প্রতিপক্ষ একটি কু-চক্রী মহল তার বিরুদ্ধে মিথ্যা অপপ্রচারে লিপ্ত রয়েছে। মিথ্যা বানোয়াট ভিত্তিহীন তথ্য অপপ্রচার চালিয়ে তার জনপ্রিয়তা ঠেকানো যাবেনা।

সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, মজহারুল ইসলাম জামাত নেতা। তাকে দিয়ে মার্শালসহ কয়েকজন মিলে মিজনুর রহমানের বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালাচ্ছেন। গতকালের সংবাদ সম্মেলনটি ছিল সম্পূর্ণ সাজানো, মিথ্যা ও রাজনৈতিক উদ্দেশ্য প্রনোদিত। আমরা মাইটভাঙ্গা ইউনিয়ন যুবলীগের পক্ষ থেকে এহেন মিথ্যা সাজানো ও ষড়যন্ত্রমুলক সংবাদ সম্মেলনের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই।

সংবাদ সম্মেলনে ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক আইনুল কবির মুন্না, হাফেজ আবদুর রহমান ও মোহাম্মদ রিয়াদ উপস্থিত ছিলেন।