‘মাশরাফি ভাই’কেই বড় উদাহরণ মানছেন তাসকিন

ছবি: সংগৃহীত
CPLUSTV
CTG NEWS
CPLUSTV
শেয়ার করুন

সিপ্লাস ডেস্ক: মাশরাফি বিন মুর্তজা পরবর্তী সময়ে বাংলাদেশ দলের পেস বোলিং ইউনিটের হাল ধরেছেন তাসকিন আহমেদ। তাতে ভাগ্যও যেন তারই আইডল মাশরাফির মতো বিমাতাসুলভ আচরণ করছে। একের পর এক ইনজুরিতে মাঠের থেকে বাইরেই বেশি কাটাতে হচ্ছে ডানহাতি পেসারকে। সবশেষ পিঠের ইনজুরিতে পড়েছেন তাসকিন। সেই চোটে দক্ষিণ আফ্রিকা থেকে ফিরে ঘরের মাঠে শ্রীলঙ্কা সিরিজে খেলা হয়নি তার।

তাসকিন অবশ্য আসন্ন ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরের দলে আছেন। এজন্য সেরে উঠতে রিহ্যাব প্রক্রিয়ার অংশ হিসেবে আজ বুধবার ( ১ জুন) থেকে বোলিং শুরু করেছেন। হালকা রানআপে প্রায় ৮ ওভার হাত ঘুরিয়েছেন তিনি। এরপর বুধবার মিরপুরে সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে তাসকিন জানালেন, মাশরাফির থেকে অনুপ্রাণিত হয়ে আবার বাইশ গজে ফেরার অপেক্ষার প্রহর গুণছেন তিনি।

তাসকিন বলছিলেন, ‘ইনজুরির বাঁধা মাঝে মাঝে আসবে আর সেটাকে ওভারকাম করতে হবে। আমাদের সবচেয়ে বড় উদাহরণ তো মাশরাফি ভাই, সেও অনেক ইনজুরি ফাইট করে খেলেছে। এসব দেখার পর আমরা তরুণ ফাস্ট বোলাররা আরও অনুপ্রাণিত হই, ইনজুরি হবেই কিন্তু কামব্যাকও করতে হবে।’

মাশরাফি কিছুদিন আগে এক সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন, পেসারদের চোটমুক্ত থাকতে তিন ফরম্যাট বেছে বেছে খেলা উচিৎ। তরুণ তাসকিন অবশ্য নিজেকে নিয়ে এখনই সেভাবে ভাবছেন না। তাকে নিয়ে সিদ্ধান্ত ছেড়েছেন ক্রিকেট বোর্ডের ওপরেই।

তাসকিনের ব্যাখ্যা, ‘না আসলে এরকম কোন চিন্তাভাবনা করিনি। আমি স্টিল ইয়াং। আমি যখন আরও সিনিয়র হব যখন অনেক লোড পড়বে, তখন বোর্ড ডিসিশন নিবে কোনটা খেলতে হবে বা কোনটা খেলতে হবে না। পার্সোনালি আমি তিন ফরম্যাটেই খেলতে চাই। সবাই শুধু দোয়া করবেন।’

নিজের ইনজুরির সবশেষ অবস্থা নিয়ে তাসকিন বলেন, ‘অনেক দিন পরে বোলিং শুরু করতে পেরেছি এতেই অনেক খুশি। আজকে অনেক দিন পর ৮ ওভার বোলিং করলাম। রিহ্যাব করাটা একা একা অনেক বোরিং এবং এটা অনেক কষ্টে একজন প্লেয়ার হিসেবে বাইরে বসে খেলা দেখা। আল্লাহর রহমতে আজকে বোলিং করতে পেরে ভালই লাগছে।’