মাছ ধরতে গিয়ে লাশ হয়ে ফিরল বাবা, ছেলে উদ্ধার

CPLUSTV
CTG NEWS
CPLUSTV
শেয়ার করুন

পিতাপুত্র মিলে নদীতে মাছ শিকার করতে গিয়ে পিতার মৃত্যু হয়েছে। এই ঘটনায় জোয়ারে পানিতে ভেসে অবশেষে ৬ ঘন্টা পর উদ্ধার হয় ছেলে।

সোমবার রাত আনুমানিক ২ টায় সন্দ্বীপ উপজেলার মগধরা ইউনিয়নের ছোয়াখালী ফেরীঘাট সংলগ্ন নদীতে এই ঘটনা ঘটে।

জানাযায়, সোমবার রাত ১টায় নুর হোসেন (৪০) ও তার ছেলে আকিদ(১২) মগধরার দক্ষিনে বঙ্গোপসাগরের মোহনায় জেগে উঠা নতুন চরে বরশী দিয়ে মাছ ধরতে যায়।

বেড়ীবাঁধ থেকে প্রায় ৪ কিলোমিটার দক্ষিণ পূর্ব পাশে মাছ ধরার সময় নদীতে জোয়ার আসে। জোয়ারের পানি দ্রুত বেড়ে গেলে তারা জোয়ারের পানিতে ভেসে আলাদা হয়ে যায়। আকিব জোয়ারে ভাসতে ভাসতে জেলেদের পোতা একটি জাল ধরে আশ্রয় নেয়। ভাটার সময় জেলেরা জাল থেকে মাছ নিতে আসলে তাকে দেখে উদ্ধার করে কিন্তু তার পিতা নিখোঁজ থাকে। পরে তাকে অনেক খোজাখুজির পর মঙ্গলবার দুপুর একটায় চর থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়।

বিকাল ৫ টায় স্থানীয় হাই স্কুল মাঠে জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে তার লাশ দাফন করা হয়।

বেচে যাওয়া আকিব জানায়, আমি এবং আব্বু মাছ ধরতে নদীতে যাই। কিছুক্ষণ পরে জোয়ার আসলে আমরা একটা বালুর টিলায় আশ্রয় নিই। জোয়ারে বালু ভাসিয়ে নিলে আমরাও ভেসে যাই। এরপর আমি জাল ধরে বেচে যাই। আব্বাকে খুঁজে পাইনি।পরে লাশ পেয়েছি।

নিহত নুর হোসেন মগধরা ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের মালেক মুন্সির বাড়ির বাসিন্দা।