ভাইকে ফাঁসাতে ছেলে-ভাতিজাকে নিয়ে স্ত্রী খুন করলো স্বামী

CPLUSTV
CTG NEWS
CPLUSTV
শেয়ার করুন

টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে বড় ভাইকে ফাঁসাতে সন্তান ও ভাতিজাকে নিয়ে সুফিয়া নামে এক নারীকে খুনের অভিযোগ উঠেছে তার স্বামীর বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে ৩ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তারা সম্মিলিতভাবে খুনের কথা স্বীকার করেছে। বৃহস্পতিবার ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবাববন্দি রেকর্ড করার জন্য আসামিদের আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার দুপুরে টাঙ্গাইল পুলিশ সুপারের সভা কক্ষে প্রেস ব্রিফিংয়ে পুলিশ সুপার রঞ্জিত কুমার রায় জানান, গত ১৪ তারিখ সোমবার মির্জাপুর উপজেলার আজগানা এলাকার আউলিয়াবাদ এলাকা থেকে  সুফিয়া বেগম নামের এক নারীর লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। পরদিন নিহতের ভাই বাদী হয়ে মির্জাপুর থানায় অজ্ঞাতনামা আসামি করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

পরবর্তীতে পুলিশের বিভিন্ন সোর্স এবং তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে হত্যার সাথে জড়িত থাকার সন্দেহে নিহতের স্বামী আলাল উদ্দিন, ছেলে শরিফুল ইসলাম এবং স্ত্রীর ভাতিজা স্বপন মিয়াকে কালিয়াকৈর উপজেলার মাটি কাটা থেকে আটক করা হয়।

পুলিশ সুপার আরও জানান, পরবর্তীতে জিজ্ঞাসাবাদে পুলিশ জানাতে পারে যে নিহতের স্বামী আলালের সঙ্গে বড় ভাইয়ের দীর্ঘদিন যাবত পারিবারিক বিরোধ চলে আসছিলো। বড় ভাইকে ফাঁসাতে এবং বিভিন্ন এনজিও থেকে লাখ লাখ ঋণের টাকা থেকে বাঁচতে ছেলে, ভাতিজা এবং স্বামী নিজেই পরিকল্পিতভাবে এই সুফিয়াকে হত্যা করে বিলের পানিতে লাশ ভাসিয়ে দেয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে এই চাঞ্চল্যকর তথ্য পাওয়া গেছে।

আসামিদের ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দির জন্য আদালতে পাঠানো হয়েছে বলেও জানান এই পুলিশ কর্মকর্তা।