ব্যাংক ঋণের মামলায় জামিন পেলেন ১২ কৃষক

ছবি: সংগৃহীত
CPLUSTV
CTG NEWS
CPLUSTV
শেয়ার করুন

সিপ্লাস ডেস্ক: অবশেষে পাবনার ঈশ্বরদী উপজেলার ১২ কৃষকের জামিন দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে এ মামলায় বাকি ২৫ জনকে আদালতে আত্মসমর্পণের নির্দেশ দিয়েছেন বিচারক।

মাত্র ২৫ হাজার টাকা ঋণখেলাপির দায়ে ওই ১২ কৃষকের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করা হয় এবং পুলিশ তাদের গ্রেফতার করে কারাগারে পাঠায়।

রোববার দুপুরে পাবনার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত ১-এর বিচারক মো. শামসুজ্জামান জামিনের আদেশ দেন।

জামিনপ্রাপ্ত কৃষকরা হলেন— উপজেলার সলিমপুর ইউনিয়নের ভাড়ইমারী গ্রামের শুকুর প্রামাণিকের ছেলে আলম প্রামাণিক (৫০), মনি মণ্ডলের ছেলে মাহাতাব মণ্ডল (৪৫), মৃত কোরবান আলীর ছেলে কিতাব আলী (৫০), হারেজ মিয়ার ছেলে হান্নান মিয়া (৪৩), মৃত আবুল হোসেনের ছেলে মোহাম্মদ মজনু (৪০) ও মৃত আখের উদ্দিনের ছেলে মোহাম্মদ আতিয়ার রহমান (৫০), মৃত সোবহান মণ্ডলের ছেলে আব্দুল গণি মণ্ডল (৫০), কামাল প্রামাণিকের ছেলে শামীম হোসেন (৪৫), মৃত আয়েজ উদ্দিনের ছেলে সামাদ প্রামাণিক (৪৩), মৃত সামির উদ্দিনের ছেলে নূর বক্স (৪৫),  রিয়াজ উদ্দিনের ছেলে মোহাম্মদ আকরাম (৪৬) ও লালু খাঁর ছেলে মোহাম্মদ রজব আলী (৪০)।

জানা যায়, বাংলাদেশ সমবায় ব্যাংক নামে পাবনার একটি আর্থিক প্রতিষ্ঠান ৩৭ জন কৃষকের নামে ঋণ খেলাপির অভিযোগে আদালতে মামলাটি দায়ের করে। বাকি ২৫ জনকে আদালতে আত্মসমর্পণের নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। তারা আজকেই আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিন আবেদন করতে পারেন বলে জানা গেছে।

আদালতে আসামিদের পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট সাইদুর রহমান সুমন, অ্যাডভোকেট মইনুল ইসলাম মোহন এবং সিনিয়র অ্যাডভোকেট কাজী সাজ্জাদ ইকবাল লিটন।

আদালত গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করলে গত বৃহস্পতিবার  থেকে শুক্রবার দুপুর পর্যন্ত পুলিশ ঈশ্বরদীর ১২ প্রান্তিক কৃষককে গ্রেফতার করে। শুক্রবার দুপুরে তাদের আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়। এই কৃষকরা ২৫ থেকে ৩০ হাজার টাকা পর্যন্ত ঋণ নিয়েছিলেন। এই ঋণের বিপরীতে তাদের বিরুদ্ধে মামলা হয়।