বুয়েট শিক্ষার্থী আবরার হত্যায় আটক ২

CPLUSTV
CTG NEWS
CPLUSTV
শেয়ার করুন

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শেরে-বাংলা হলের আবাসিক ছাত্র আবরার ফাহাদ (২১) হত্যার ঘটনায় বুয়েটের শিক্ষার্থী রাসেল ও ফুয়াদ নামে দু’জনকে আটক করছে পুলিশ। প্রাথমিকভাবে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তাঁদের আটক করা হয় বলে পুলিশ জানিয়েছে।

সোমবার (৭ অক্টোবর) সকালে তাদের আটক করা হয়।

চকবাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সোহরাব হোসেন দুজনকে আটকের বিষয়টি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন।

শিবির সন্দেহে তাকে পিটিয়ে মেরে ফেলার অভিযোগ উঠেছে ছাত্রলীগের বিরুদ্ধে। আববারের সহপাঠীরা বলছেন, বাংলাদেশ-ভারত চুক্তি নিয়ে ফেসবুকে পোস্ট দেওয়ায় তাকে পিটিয়ে হত্যা করেছে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

এদিকে বুয়েট শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদকে হত্যার সময়কার সিসি ক্যামেরার ফুটেজ গায়েব করে দেয়ার অভিযোগ উঠেছে। এর প্রতিবাদে প্রভোস্ট কার্যালয় ঘিরে রেখেছে বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা।

আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের অভিযোগ, রাত ২টা ৬ মিনিটের পর আর কোনো ফুটেজ পাওয়া যাচ্ছে না। ওই ফুটেজ পেলে হত্যার বিষয়ে বিস্তারিত জানা যাবে। যতক্ষণ সিসিটিভি ফুটেজ দেখানো না হবে ততক্ষণ প্রভোস্ট কার্যালয় ঘেরাও করে রাখার ঘোষণা দিয়েছেন শিক্ষার্থীরা।

আবরার ফাহাদ বুয়েটের শেরে বাংলা হলের আবাসিক ছাত্র ছিলেন। রোববার দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে বুয়েটের শেরে বাংলা হলের সিঁড়ির পাশে আবরারের দেহ পড়ে থাকতে দেখা যায়। হল প্রভোস্ট মো. জাফর ইকবাল খান খবর পেয়ে তাৎক্ষণিকভাবে বুয়েটের চিকিৎসক দিয়ে তাকে পরীক্ষা করান। ওই চিকিৎসক জানান আবরার বেঁচে নেই। পরে তিনি পুলিশকে খবর দেন।

পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়েছে।