বিসিবিকে চ্যালেঞ্জ জানাচ্ছে দুই ক্রিকেট বোর্ড

ছবি: সংগৃহীত
CPLUSTV
CTG NEWS
CPLUSTV
শেয়ার করুন

সিপ্লাস ডেস্ক: আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের পাশাপাশি বাড়ছে ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগের ব্যস্ততাও। এখন প্রায়ই প্রতিটি ক্রিকেট বোর্ডেরই আছে ফ্র্যাঞ্চাইজিভিত্তিক ক্রিকেট। ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (আইপিএল), পাকিস্তান সুপার লিগ (পিএসএল), ক্যারিবীয় প্রিমিয়ার লিগের (সিপিএল) মতো টুর্নামেন্টগুলোর জনপ্রিয়তা এখন আকাশচুম্বী। সেই তুলনায় অনেকটাই পিছিয়ে বিসিবির বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল)।

আইপিএলের তিন বছর পর বিপিএলের যাত্রা শুরু হলেও নানা বিতর্ক, অনিয়ম-অসংগতি আর বছরে একটি নির্দিষ্ট সময়ে না হওয়ায় বিপিএল এগোতে পারেনি প্রত্যাশা অনুযায়ী। বিপিএল কখনো হয় নভেম্বর, কখনো ডিসেম্বরে। সর্বশেষ হয়েছে জানুয়ারি-ফেব্রুয়ারিতে। একেক সময়ে টুর্নামেন্ট হওয়ায় বড় বড় তারকা, ভালো মানের বিদেশি ক্রিকেটারদের পেতে সমস্যা হয় বিসিবির। এমনকি সম্প্রচার, প্রযুক্তিগত জটিলতায় পড়তে হয় তাদের।

আগামী বিপিএলেও একই সমস্যায় পড়তে যাচ্ছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। সর্বশেষ বিপিএলের সময় পিএসএল হয়েছে। এবারও বিসিবিকে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিচ্ছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)। সঙ্গে যোগ হয়েছে ক্রিকেট দক্ষিণ আফ্রিকা (সিএসএ)। পিসিবি সিদ্ধান্ত নিয়েছে আগামী বছর ফেব্রুয়ারি-মার্চে আয়োজন করবে অষ্টম পিএসএল। ১৫ ফেব্রুয়ারি শুরু হয়ে টুর্নামেন্ট শেষ হবে ৩১ মার্চ।

এর আগে জানুয়ারিতে টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট লিগ আয়োজন করতে ইতিমধ্যে সুপার স্পোর্টের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হয়েছে সিএসএ। ৬ দলের এই টুর্নামেন্টে ৩৩টি ম্যাচ আয়োজনের পরিকল্পনা দক্ষিণ আফ্রিকা ক্রিকেট বোর্ডের।

এ বছরের শেষ দিকে দুই টেস্টের সিরিজ খেলতে ভারত আসবে বাংলাদেশে। ভারতের এই সফরে তিনটি ওয়ানডে যোগ করার প্রস্তাব আছে বিসিবির। বিপিএল আয়োজন করতে গেলে বিসিবিকে তাই আগামী বছরের জানুয়ারি-ফেব্রুয়ারির স্লট কাজে লাগাতে হবে। সেটি কাজে লাগাতে হলে বিসিবিকে উতরে যেতে হবে পিসিবি আর সিএসএর ছুড়ে দেওয়া চ্যালেঞ্জ।