বিবর্ণ বার্সাকে হারিয়ে শীর্ষে গ্রানাদা

ছবি-সংগৃহীত
CPLUSTV
CTG NEWS
CPLUSTV
শেয়ার করুন

ম্যাচ জুড়ে নিজেদের খুঁজে ফিরে বিব্রতকর এক হার নিয়ে মাঠ ছাড়লো কাতালান ক্লাবটি। ঘরের মাঠে শনিবার রাতে লা লিগায় টানা দুবারের চ্যাম্পিয়নদের ২-০ গোলে হারিয়েছে গ্রানাদা। এই নিয়ে লিগে টানা তিন ম্যাচ নিজেদের জাল অক্ষত রাখলো দলটি।

টানা তৃতীয় জয়ে পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে উঠে এলো দুই মৌসুম পর স্পেনের শীর্ষ লিগে ফেরা গ্রানাদা। অন্যদিকে, সব প্রতিযোগিতা মিলে টানা দুই ম্যাচ জয়শূন্য রইলো বার্সেলোনা। গত মঙ্গলবার চ্যাম্পিয়ন্স লিগে বরুসিয়া ডর্টমুন্ডের মাঠে গোলশূন্য ড্র করেছিল মেসি-সুয়ারেসরা।

চার দিন আগে ইউরোপ সেরা প্রতিযোগিতায় অগোছালো, ধারহীন ফুটবল খেলা বার্সেলোনাকে গ্রানাদার বিপক্ষেও প্রথমার্ধে দেখা গেল সেই একই রূপে। বিরতির আগে লক্ষ্যে শট নেওয়া তো দূরের কথা, উল্লেখযোগ্য কোনো আক্রমণই করতে পারেনি শিরোপাধারী। উল্টো ম্যাচের ৬৩ সেকেন্ডের মাথায় রক্ষণের ভুলে পিছিয়ে পড়ে দলটি।

জুনিয়র ফিরপোর পা থেকে বল কেড়ে রবের্তো সলদাদো বাড়ান ফরোয়ার্ড আন্তোনিওকে। স্প্যানিশ এই ফরোয়ার্ডের ডি-বক্সে ঢুকে দুরূহ কোণ থেকে দূরের পোস্টে নেওয়া শট লক্ষ্যেই ছিল, একেবারে শেষ মুহূর্তে গোললাইনের উপর থেকে হেডে বল জালে জড়ান মিডফিল্ডার র‌্যামন। আন্তোনিওকে রুখতে এগিয়ে যাওয়া গোলরক্ষক মার্ক-আন্ড্রে টের স্টেগেনের তাকিয়ে দেখা ছাড়া কিছুই করার ছিল না।

আক্রমণে ধার বাড়াতে দ্বিতীয়ার্ধে শুরুতে একসঙ্গে দুটি পরিবর্তন করেন বার্সেলোনা কোচ ভালভেরদের। কার্লেস পেরেস ও ডিফেন্ডার ফিরপোকে তুলে নামান দুই ফরোয়ার্ড মেসি ও আনসু ফাতিকে।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে টের স্টেগেনের ভুলে আবারও গোল খেতে বসেছিল বার্সেলোনা। প্রতিপক্ষের এক আক্রমণে বিপদের কোনো শঙ্কাই ছিল না। কিন্তু উড়ে আসা বল হাতে রাখতে পারলেন না জার্মান গোলরক্ষক, বল যাচ্ছিল গোললাইন পেরিয়ে, শেষমুহূর্তে কোনোমতে ঠেকিয়ে দেন টের স্টেগেন।

ডর্টমুন্ডের বিপক্ষে একটি পেনাল্টি ঠেকিয়ে দলের হার এড়িয়েছিলেন টের স্টেগেন। এবার আর পারলেন না। ৬৬তম মিনিটে স্পট কিকে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন খানিক আগেই বদলি নামা উইঙ্গার আলভারো ভাদিয়ো। ডি-বক্সে জটলার মধ্যে আর্তুরো ভিদালের হাতে বল লাগলে ভিএআরের সাহায্যে পেনাল্টির বাঁশি বাজিয়েছিলেন রেফারি।

দুই মিনিট পর ম্যাচে প্রথমবারের মতো প্রতিপক্ষের গোলরক্ষকের পরীক্ষায় নেয় অতিথিরা। ফাতির কোনাকুনি শট ঝাঁপিয়ে ঠেকান পর্তুগিজ গোলরক্ষক রুই সিলভা। ৮২তম মিনিটে মেসির নিচু শটও এই পর্তুগিজ রুখে দিলে হারের হতাশায় মাঠ ছাড়ে বার্সেলোনা। অসাধারণ এক জয়ের উল্লাসে মাতে গ্রানাদা।

এই নিয়ে লা লিগায় শেষ সাতটি অ্যাওয়ে ম্যাচের ছয়টিতে গোল করতে ব্যর্থ হলো বার্সেলোনা। আর এবারের লিগে প্রথম পাঁচ রাউন্ডে দুটি হারের মুখ দেখল তারা। আথলেতিক বিলবাওয়ের কাছে হেরে লিগ শুরু করা শিরোপাধারীরা দুটিতে জিতেছে, অন্যটি ড্র।

পাঁচ ম্যাচে তিন জয় ও এক ড্রয়ে শীর্ষে উঠে আসা গ্রানাদার পয়েন্ট ১০। সমান পয়েন্ট নিয়ে দুই নম্বরে আছে এক ম্যাচ কম খেলা সেভিয়া।

দিনের আরেক ম্যাচে সেল্তা দি ভিগোর সঙ্গে ঘরের মাঠে গোলশূন্য ড্র করা আতলেতিকো মাদ্রিদের অর্জনও পাঁচ ম্যাচে ১০ পয়েন্ট, তিন নম্বরে আছে দিয়েগো সিমেওনের দল। ৭ পয়েন্ট নিয়ে সপ্তম স্থানে আছে বার্সেলোনা।