বিএনপি-জামাত চক্র খেলা হবে রব তুলে দেশকে নৈরাজ্যের দিকে ঠেলে দিচ্ছে: এম. এ. লতিফ এমপি

সমাবেশে বক্তব্য রাখছেন এম. এ লতিফ এমপি
CPLUSTV
CTG NEWS
CPLUSTV
শেয়ার করুন

নিজস্ব প্রতিবেদক: চট্টগ্রাম-১১ আসনের সংসদ সদস্য এম. এ. লতিফ’র উদ্যোগে বিএনপি-জামাত চক্রের ষড়যন্ত্রের হাত থেকে জনগণের জানমাল রক্ষায় বন্দর-পতেঙ্গা এলাকার ৬টি গুরুত্বপূর্ণ স্থানে অবস্থান কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (৬ সেপ্টেম্বর) ইপিজেড মোড়, সল্টগোলা বাজার, স্টীল মিল, কাঠগড় মোড়, আগ্রাবাদ বাদামতলী মোড় ও সিমেন্ট ক্রসিং মোড়ে আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, শ্রমিকলীগ, স্বেচ্ছাসেবকলীগ ও ছাত্রলীগ’র নেতাকর্মীরাসহ সর্বস্তরের জনগণ স্বতঃস্ফূর্তভাবে কর্মসূচীতে অংশগ্রহণ করে।

অবস্থান কর্মসূচী পালনকালে এম. এ. লতিফ এমপি বলেন, আওয়ামীলীগ বিএনপি-জামাতের হুমকি ধমকিতে দমিয়ে যাওয়া কোন দল নয়। ১৯৭১ সালে এ দলের নেতৃত্বে সশস্ত্র সংগ্রামের মাধ্যমে পাকিস্তানিদের বিতাড়িত করে বিজয় ছিনিয়ে এনেছে। বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে জনগণকে সাথে নিয়ে আওয়ামীলীগ বিএনপি-জামাতের সমস্ত সন্ত্রাস ও নৈরাজ্য রুখে দিবে।

তিনি আরও বলেন, বর্তমান প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে দেশ যখন এগিয়ে যাচ্ছে, তখনি বিএনপি-জামাত চক্র খেলা হবে রব তুলে দেশকে নৈরাজ্যের দিকে ঠেলে দিচ্ছে। কিন্তু আওয়ামীলীগ জনগণের সরকার, জনগণকে সাথে নিয়ে এসব নৈরাজ্যের খেলা খেলতে দেয়া হবে না। চলমান নৈরাজ্য রুখে দিতে প্রতিটি পয়েন্টে আওয়ামীলীগ ও এর অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীদের জনগণের জানমাল রক্ষায় অতন্ত্র প্রহরীর ভূমিকা পালন করার আহবান জানান এম. এ. লতিফ এমপি।

নগরীর বিভিন্ন নেতাকর্মীদের সাথে অবস্থান কর্মসূচী পালনকালে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামীলীগের শিল্প ও বাণিজ্য বিষয়ক সম্পাদক মাহবুবুল হক মিয়া, ওয়ার্ড কাউন্সিলর আলহাজ্ব ছালেহ আহমেদ, আলহাজ্ব আবদুল বারেক, আলহাজ্ব জিয়াউল হক সুমন, সাবেক কাউন্সিলর মোঃ আসলাম, ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ নেতা জসিম উদ্দিন চৌধুরী, পতেঙ্গা থানা আওয়ামীলীগ আহবায়ক আব্দুল হালিম, ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ’র সহ-সভাপতি ওয়াহিদুল আলম, মোহাম্মদ আলী ও নুর মোহাম্মদ, সাধারণ সম্পাদক আকবর হোসেন কবি, নুরুল আলম, সাবেক সাধারণ সম্পাদক শাহাদাৎ হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক আলী আকবর, ওয়ার্ড যুবলীগ’র সভাপতি মঈনুল ইসলাম, নজরুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক জামাল উদ্দিন রাজু, মোঃ সালাউদ্দিন ও আহমেদ আব্দুর রহিম চৌধুরী, সাংগঠনিক সম্পাদক সুফিউর রহমান টিপু, লবণ শ্রমিক লীগ সভাপতি আব্দুল মতিন মাষ্টার, ডক শ্রমিক লীগ নেতা মোঃ ইমাম হোসেন, আওয়ামীলীগ নেতা শামসুল ইসলাম, মোঃ আলমগীর হাসান, নেছার মিয়া আজিজ, মোঃ আলমগীর, ইউনিট সাধারণ সম্পাদক সুলতান, স্বচ্ছাসেবকলীগ নেতা মুস্তাকিম আহমদ গুড্ডু, এস. এম. পারভেজ, মামুনুজ্জামান, যুবলীগ নেতা হাসান উদ্দিন সোহেল, মোঃ দিদার, মোঃ সাজ্জাদ, মোঃ শহীদ শেঠ ও মোঃ জুয়েল, ব্যারিস্টার কলেজ ছাত্র সংসদের ভিপি জাহেদ হোসেন খোকন, ছাত্র নেতা মোঃ আরিফ, কমার্স কলেজ ছাত্রলীগ নেতৃবৃন্দ, স্বাধীনতা নারী শক্তি’র পরিচালক অধ্যাপিকা হালিমা বারেক, মাহবুবা আরা, শাহানাজ আক্তার, জাহেদা, অধ্যাপিকা বিবি মরিয়ম-সহ বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ ও সহযোগী অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।