বিএনপি-ছাত্রলীগের কর্মসূচী ঠেকাতে রাঙামাটির কাপ্তাইয়ে ১৪৪ ধারা জারি

কাপ্তাই উপজেলার নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মুনতাসির জাহান
CPLUSTV
CTG NEWS
CPLUSTV
শেয়ার করুন

আলমগীর মানিক,রাঙামাটি: রাঙামাটির কাপ্তাইয়ে উপজেলা প্রশাসনের ১৪৪ ধারা জারিতে নিরাপত্তা বাহিনীর কঠোর অবস্থানের কারনে পূর্ব নির্ধারিত কর্মসূচী পালন থেকে বিরত রয়েছে বিএনপি ও ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। আজ রোববার সকাল ১০ থেকেই উপজেলা সদরে বিএনপি ও ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে একই সময়ে একই স্থানে সভা-সমাবেশের আয়োজন করা হলে উদ্ভূত পরিস্তিতিতে সম্ভাব্য সাংঘর্ষিক পরিস্থিতি মোকাবেলায় কাপ্তাই উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে রোববার সকাল হতে সন্ধ্যা পর্যন্ত কাপ্তাই উপজেলাসহ আশেপাশের এলাকাগুলোতে সকল প্রকার সভা-সমাবেশসহ একই সাথে চারজনের অধিক লোকজন জমায়েত সম্পূর্নরূপে নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

শনিবার(২৭ আগস্ট) রাতে কাপ্তাই উপজেলার নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মুনতাসির জাহান স্বাক্ষরিত  এক গণবিজ্ঞপ্তিতে ১৪৪ ধারা জারির কথা জানানো হয়।

এদিকে রবিবার সকাল হতে ক্ষমতাসীন আওয়ামীলীগ ও অঙ্গ-সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা সমাবেশ করেনি।  একইসাথে বিএনপির নেতাকর্মীদেরও মাঠে দেখা যায়নি। সকাল থেকেই কাপ্তাই উপজেলার বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ন পয়েন্টে পুলিশী টহল ছিলো চোখে পড়ার মতো।

কাপ্তাই উপজেলা ম্যাজিষ্ট্রেট ও ইউএনও মুনতাসির জাহান জানিয়েছেন, রোববার দুইটি বৃহত্তর দলের একই স্থানে একই সময়ে সমাবেশ ডাকায় অনাকাঙ্খিত ঘটনা এড়াতে এবং জনমনে আতঙ্ক দূর করতে কাপ্তাই উপজেলা প্রশাসন ফৌজদারি কার্যবিধীর ১৮৯৮ এর ১৪৪ ধারা মোতাবেক সকাল ৬ টা হতে সন্ধ্যা ৬ টা পর্যন্ত জরুরী অবস্থার ঘোষণা করেছে।

এদিকে রোববার সকাল থেকেই কাপ্তাই থানার অফিসার ইনচার্জ জসিম উদ্দিনের নেতৃত্বে পুলিশ সদস্যদের উপজেলা সদরসহ এর আশেপাশে এলাকায় সরব উপস্থিতি দেখা গেছে। এসময় তিনি গণমাধ্যমকে জানান, বিএনপি-ছাত্রলীগ একই স্থানে সমাবেশ আহবান করায় আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি চরম অবনতি হবার আশঙ্কা থাকায় জনগণের নিরাপত্তা ও শান্তিশৃঙ্খলা স্বার্থে উপজেলা নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ১৪৪ ধারা জারি করে। কেউ যদি আইন শৃঙ্খলার অবনতি, নাশকতা বা ফৌজদারী অপরাধ করার চেষ্টা করে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

উল্লেখ্য, জ্বালানী তেলের মূল্য বৃদ্ধি, পরিবহন ভাড়াসহ নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্যের দাম বৃদ্ধির প্রতিবাদে বিএনপির ঘোষিত কেন্দ্রীয় কর্মসূচীর অংশ হিসেবে কাপ্তাই উপজেলা বিএনপি ও অঙ্গ-সহযোগী সংগঠনের উদ্যোগে রোববার সকালে বিক্ষোভ সমাবেশের আয়োজন করা হয়েছিলো। এদিকে, একই স্থানে একই সময়ে একই তারিখে কাপ্তাই উপজেলা আওয়ামীলীগ ও এর অঙ্গ-সহযোগী সংগঠনের উদ্যোগে তারেক জিয়ার ফাঁসির দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশের আয়োজন করার ঘোষণা দেওয়ায় উপজেলা প্রশাসন পরিস্তিতি নিয়ন্ত্রণে ১৪৪ ধারা জারি করে।