বাসচাপায় নজরুল ইসলাম আকাশ নিহতের ঘটনায় দোষীদের বিচার দাবি

দোষীদের বিচার দাবিতে মানববন্ধন করেছেন শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা
CPLUSTV
CTG NEWS
CPLUSTV
শেয়ার করুন

নিজস্ব প্রতিবেদক: বাসচাপায় চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) সাবেক শিক্ষার্থী নজরুল ইসলাম আকাশ নিহতের ঘটনায় দোষীদের বিচার দাবিতে মানববন্ধন করেছেন শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা।

রোববার (২৮ আগস্ট) দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ মিনার চত্বরে এ মানববন্ধন করে চবির রাজনীতি বিজ্ঞান বিভাগ।

নজরুল ইসলাম রাজনীতি বিজ্ঞান বিভাগের ২০১১-১২ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী ছিলেন। গত শুক্রবার (২৬ আগস্ট) সকালে ঢাকার সায়দাবাদ এলাকায় একটি বেপরোয়া গতির বাসের চাপায় নিহত হন তিনি।

রাজনীতি বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. এনায়েত উল্যাহ পাটোয়ারী বলেন, নজরুল খুবই মেধাবী শিক্ষার্থী ছিল। তার বাবা সাধারণ গাড়িচালক ছিলেন। বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির সময় তার বাবা নিজের গাড়িটি বিক্রি করে তাকে পড়ালেখা করান। আজ নজরুল আমাদের মাঝে নেই। তার বাবা-মা দুজনেই এখন অসুস্থ, এমনকি তার মা ক্যান্সারের রোগী। এ অবস্থায় আমাদের তার পরিবারের পাশে দাঁড়াতে হবে।

তিনি বলেন, পরিবহন সিন্ডিকেটের কারণে চালকরা এমন বেপরোয়াভাবে গাড়ি চালানোর সাহস পায়। এ মাফিয়া চক্র হত্যাকাণ্ডের জন্য ঠিকমতো ক্ষতিপূরণ পর্যন্ত দেয়নি। এমনকি মামলা করতেও বাধা দিয়েছে। এসবে সংশ্লিষ্টদের বিচারের আওতায় আনার দাবি জানাচ্ছি আমরা।

রাজনীতি বিজ্ঞান বিভাগের সভাপতি অধ্যাপক ড. মোস্তাফিজুর রহমান সিদ্দিকী বলেন, এ ধরনের মৃত্যু আমরা প্রত্যাশা করি না৷ নজরুলের অকাল মৃত্যুতে আমরা শোকাহত। আজ এমন একটি মানববন্ধনে অংশ নিতে হবে সেটা প্রত্যাশা করিনি। নজরুলের মৃত্যুর ঘটনায় জড়িত সবাইকে দ্রুত বিচারের দাবি জানাচ্ছি।

তিনি বলেন, আজ যদি তার পরিবার প্রভাবশালী হতো তাহলে দেশের আইন তৎপর হয়ে উঠতো। পুলিশ প্রশাসন তৎপর থাকত। শুধু এক লাখ টাকার বিনিময়ে এ বিষয়ে আপস করা হতো না। আমরা জেনেছি এক লাখ টাকায় দোষীদের ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। শুধু নজরুলের সামাজিক অবস্থান এবং আর্থিক দীনতার কারণে ন্যায়বিচার পাবে না, তা হতে পারে না। আমরা নজরুল পরিবারকে যথাযথ ক্ষতিপূরণ দেওয়ার জোর দাবি জানাচ্ছি।

রাজনীতি বিজ্ঞান বিভাগের ৪৭তম ব্যাচের রায়হান আহমেদের সঞ্চালনায় মানববন্ধনে বক্তব্য দেন সহযোগী অধ্যাপক মো. বখতেয়ার উদ্দিন, সহকারী অধ্যাপক উম্মে হাবিবা ও শারমিলা কবির। এসময় রাজনীতি বিজ্ঞান বিভাগের শতাধিক শিক্ষার্থী উপস্থিত ছিলেন।