বাকঁখালী নদীতে শতাধিক কল্প জাহাজ ভাসছে

বাকঁখালী নদীতে শতাধিক কল্প জাহাজ ভাসছে।
CPLUSTV
CTG NEWS
CPLUSTV
শেয়ার করুন

রামু প্রতিনিধি: বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের অন্যতম ধর্মীয় উৎসব শুভ প্রবারণা পূর্ণিমা উপলক্ষে কক্সবাজারের রামুতে অনুষ্ঠিত হয়েছে কল্প জাহাজভাসা উৎসব। এতে বাকঁখালী নদীতে শতাধিক কল্প জাহাজ ভাসানো হয়েছে। এদিকে গতকাল থেকে সন্ধ্যাকাশে উড়ানো হয়েছে একের পর এক দৃষ্টিনন্দন উজ্জ্বল ফানুস।

প্রবারণা পূর্ণিমা উপলক্ষে রামুর বাঁকখালী নদীর চরে এই উৎসবে ঢল নামে সর্বস্তরের মানুষের। ধর্মীয় গুরুরাও বলছেন, এমন উৎসব ধর্মীয় সম্প্রীতি বাড়ায়, দৃঢ় করে মানুষে মানুষে সম্পর্ক।

সোমবার(১০অক্টোবর) বিকেলে বাদ্যবাজনার তালে তালে রামুর বাকঁখালী নদীতে শত শত তরুণ-তরুণীদের উচ্ছ্বাস আর উল্লাসের মধ্য দিয়ে ভেসে বেড়াচ্ছে রং বেরঙের দৃষ্টিনন্দন কাগজের কল্প জাহাজ। এতে শুধু বৌদ্ধরা নয়, বিভিন্ন ধর্মের মানুষ অংশ নেয়।

এ উপলক্ষে জাহাজভাসা উদযাপন পরিষদের সভাপতি অর্পণ বড়ুয়ার সভাপতিত্বে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির দপ্তর সম্পাদক ও প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া।

জাহাজভাসা উদযাপন পরিষদের সাধারন সম্পাদক জিৎময় বড়ুয়ার পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন, কক্সবাজার ৩ আসনের সাংসদ সাইমুম সরওয়ার কমল, কক্সবাজার জেলা প্রশাসক মামুনুর রশিদ, রামু উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা(ইউএনও) ফাহমিদা মুস্তফা, উপজেলা সহকারী কমিশনার(ভূমি) নিরুপম মজুমদার, ঢাকা আন্তর্জাতিক বৌদ্ধ বিহারের উপাধ্যক্ষ ও সৌগত সম্পাদক ভিক্ষু সুনন্দপ্রিয় মহাথের, বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক সহ-সভাপতি ব্যারিস্টার প্রসান্ত ভূষন বড়ুয়া, রামু থানা অফিসার ইনচার্জ(ওসি) আনোয়ারুল হোছাইন, কক্সবাজার জেলা যুবলীগের সাবেক সাধারন সম্পাদক মাহবুবুর রহমান, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি এস এম সাদ্দাম হোছাইন, রামু উপজেলা স্বাস্থ্য ও প.প কর্মকর্তা নোবেল বড়ুয়া, ঢাকার সাংবাদিক নাজনীন মুন্নী, রামু প্রেস ক্লাবের সভাপতি নীতিশ বড়ুয়াসহ স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও বৌদ্ধ ধর্মীয় নেতৃবৃন্দরা উপস্থিত ছিলেন।

বৌদ্ধ ধর্ম মতে, প্রবারণা দিবসে এ রকম সুসজ্জিত জাহাজে করে মহামতি বুদ্ধ বৈশালী নগর থেকে রাজগৃহে ফিরেছিলেন। এ সময় পথে মানুষ, দেবতা, নাগ সবাই বুদ্ধকে পূজা করেছিল। সেই ঘটনা স্মরণে প্রায় শত বছর ধরে রামুতে জাহাজভাসা উৎসব হয়ে আসছে।