ফেনীতে ১৬ কোটি ৮৮ লাখ ৭১ হাজার ৩শ টাকার মাদকদ ধ্বংস করছে বিজিবি 

ছবি:সিপ্লাসটিভি.নিউজ
CPLUSTV
CTG NEWS
CPLUSTV
শেয়ার করুন

মোঃ আরিফুল ইসলাম আকাশ: ২৭জুলাই সকালে বিজিবির জায়লস্কর সদর দপ্তরে মাদকদ্রব্যগুলো ধ্বংস করা হয়।

এ উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন ফেনী-২ আসনের সংসদ সদস্য নিজাম উদ্দিন হাজারী। বিশেষ অতিথি ছিলেন কুমিল্লা সেক্টর সদর দপ্তরের সেক্টর কমান্ডার উপ-মহাপরিচালক কর্নেল মো. মারুফুর আবেদীন। এ সময় অতিথি হিসেবে আরো উপস্থিত ছিলেন ফেনী ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল একেএম আরিফুল ইসলাম, উপ-অধিনায়ক মেজর মো. জাকির হোসেন, সহকারী পরিচালক মোহাম্মদ আলীউজ্জামান, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আজগর আলী, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার নাদিয়া ফারজানা, সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট কামরুল হাসান, জেলা শিক্ষা অফিসার কাজী সলিম উল্যাহ।

বিজিবি সূত্রে জানানো হয়েছে, ১ জানুয়ারি ২০১৮ থেকে ৩০ জুন ২০২২ পর্যন্ত উদ্ধার করা মাদক দ্রব্যের মধ্যে রয়েছে ৯ হাজার ৩শ ৬৪ বোতল ভারতীয় ফেন্সিডিল আনুমানিক মূল্য ৩৭ লাখ ৪৫ হাজার ৬শ টাকা, ১৯ বোতল ভারতীয় ইস্কপ সিরাপ আনুমানিক মূল্য ৭ হাজার ৬শ টাকা, ৬শ ৮৮ ভারতীয় বিয়ার ক্যান-বোতল আনুমানিক মূল্য ১ লাখ ৭২ হাজার টাকা, ১৩ হাজার ২শ ১১ বোতল ভারতীয় হুইস্কি আনুমানিক মূল্য ১ কোটি ৯৮ লাখ ১৬ হাজার ৫শ টাকা, ৫শ ১৫.৫ কেজি ভারতীয় গাঁজা আনুমানিক মূল্য ১৮ লাখ ৪ হাজার ২শ ৫০ টাকা, ১৬ হাজার ৪শ ৭৯ পিস ভারতীয় ইয়াবা ট্যাবলেট ৪৯ লাখ ৪৩ হাজার ৭শ টাকা, ১৩ লাখ ৮৩ লাখ ৬শ ৬২ পিস ভারতীয় সেনেগ্রা, টার্গেট ও অন্যান্য নেশা জাতীয় ট্যাবলেট মূল্য ১৩ কোটি ৮৩ লাখ ৬৬ হাজার ২শ টাকা, ৩৯.৫ লিটার বাংলা মদ মূল্য ১১ হাজার ৮শ ৫০ টাকা, ৯ বোতল রিকোডেক্স সিরাপ মূল্য ৩ হাজার ৬শ টাকা। মোট ১৬ কোটি ৮৮ লাখ ৭১ হাজার ৩শ টাকার মাদকদ্রব্য ধ্বংস করা হয়।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে ফেনী দুই আসনের সংসদ সদস্য নিজাম উদ্দিন হাজারী বলেন, নিজের জীবনকে উৎসর্গ করে বিজিবি দেশের সীমান্ত রক্ষা করছে। মাদক ক্যান্সারের মতো ব্যাধি। এটা শুধু বিজিবির মাধ্যমে নিয়ন্ত্রণ সম্ভব নয়। এটিকে নির্মূল করতে হলে জন প্রতিনিধি থেকে শুরু করে সবার সমন্বিত উদ্যোগ প্রয়োজন। সকলের প্রচেষ্টা থাকলে এ দেশ একদিন মাদক মুক্ত হবেই হবে।

বিজিবির সদর সেক্টর কুমিল্লা উপ-পরিচালক, সেক্টর কমান্ডার কর্নেল মো. মারুফুল আবেদীন বলেন, শুধু পরিবার নয়, পুরো দেশের জন্য হুমকি একজন মাদকসেবী। বিজিবি মাদক রোধে জিরো টলালেন্সে কাজ করে যাচ্ছে।