ফটিকছড়িতে মৃত্যুর নয় মাস পর কবর থেকে শিক্ষার্থীর লাশ উত্তোলন

ছবি: সংগৃহীত
CPLUSTV
CTG NEWS
CPLUSTV
শেয়ার করুন

আনোয়ার হোসেন ফরিদ: ফটিকছড়িতে আদালতের নির্দেশে মৃত্যুর নয় মাস পর কবর থেকে ইমন নামে (১৭) এক শিক্ষার্থীর লাশ উত্তোলন করা হয়েছে।

নিহতের বাড়ির অদুরে কবরস্থান থেকে লাশটি উত্তোলন করা হয়। ৩১ মে মঙ্গলবার দুপুরে  লাশ উত্তোলনে নেতৃত্ব দেন  নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও ইউএনও সাব্বির রাহমান সানি। উত্তোলনের পর লাশটি ময়না তদন্তের জন্য  মর্গে পাঠানো হয়েছে।

সে উপজেলার দাঁতমারা ইউনিয়নের সাপমারা গ্রামের আব্দুল কাদেরের পুত্র।

উত্তোলনের সময় লাশের শরীর থেকে  এক ধরনের বিশ্রী গন্ধ বের হচ্ছিল। সাথে সাথে অর্ধগলিত লাশটিকে  এম্বুলেন্সে করে  মর্গে পাঠিয়ে দেয় নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট। এদিকে, লাশ উত্তোলনের খবর পেয়ে আশে পাশের এলাকা থেকে শত শত মানুষ গোরস্থানে  এসে ভিড় জমায়।

এ সময়  উপস্থিত ছিলেন ভুজপুর থানার ওসি হেলাল উদ্দিন ফারুকীসহ থানা ও  স্থানীয় পুলিশ ফাঁড়ির একটি টীম।

উল্লেখ্য: নিহত ইমন লেখা পড়ার পাশাপাশি একই এলাকার শফির মুরগির খামারে মাসিক বেতনে চাকুরী  করতো। ২০২১ সালের ৩ সেপ্টেম্বর রাত  সাড়ে ৭টার  দিকে খামারের পাশে তার মৃতদেহ পড়ে থাকতে দেখে পথচারীরা। পরে স্থানীয় জনপ্রতিনিধির মাধ্যমে প্রত্যয়নপত্র দিয়ে ময়না তদন্ত ছাড়া ঐদিন ভোর রাত ৪টার দিকে লাশ দাফন করা হয়। তবে ঘটনার ৭ মাস পরে এসে বিদ্যুতায়িত হয়ে ছেলের  মৃত্যু হয়েছে দাবী করে চট্টগ্রাম আদালতে মামলা দায়ের করেন ইমনের পিতা কাদের।

সর্বশেষ আদালতের নির্দেশের পরিপ্রেক্ষিতে ৩১ মে লাশটি উত্তোলন করা হয়।

এ ব্যাপারে নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী মেজিষ্ট্রেট সাব্বির রাহমান সানি বলেন আদালতের নির্দেশনা মোতাবেক লাশ উত্তোলন করে ময়না তদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে।