ফটিকছড়িতে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে ২ সন্তানের জননীর মৃত্যু

CPLUSTV
CTG NEWS
CPLUSTV
শেয়ার করুন

ফটিকছড়ি নাজিরহাট পৌরসভার ভাড়া বাসায় বিদ্যুৎ স্পৃষ্ট হয়ে শারমিন আক্তার (২২) নামে ২ সন্তানের জননীর মৃত্যু হয়েছে। আজ (২৫)সেপ্টেম্বর বুধবার সকাল সাড়ে দশটার দিকে নাজিরহাট পৌরসভার ৪ নম্বর ওয়ার্ডের রশিদা পুকুর পাড়ের দক্ষিণ পাশে আব্দুল্লাহ ম্যানশনের দ্বিতীয় তলার ৩০৪ নম্বর কক্ষের জানালার বেলখনিতে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত গৃহবধূ ফটিকছড়ি উপজেলার ধর্মপুর ইউনিয়নের দরবেশ অালী বাড়ীর সৌদি প্রবাসী জাহাঙ্গীর অালমের স্ত্রী। গৃহবধূ শারমিন আক্তার এর ৮ মাসের শিশু সন্তান ও ৫ বছরের কন্যা সন্তান রয়েছে।

জানা গেছে, নিহত গৃহবধূ আব্দুল্লাহ ম্যানশনের বেলকনিতে কাপড় শুকাতে দিলে তা নিচে পড়ে যায়। পরে পাইপের মাধ্যমে কাপড় নিতে গেলে ওই ভবনের পাশ দিয়ে যাওয়া ৩৩ হাজার ভোল্টের বিদ্যুৎ লাইনে স্পৃষ্ট হয়ে তার মৃত্যু হয়। আব্দুল্লাহ ম্যানশন এর পাশ দিয়ে যাওয়া ৩৩ হাজার ভোল্টের বিদ্যুৎ-এর তার এর কোন কভার না থাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। এলাকাবাসীর অভিযোগ আব্দুল্লাহ ম্যানশন এর পাশে বিদ্যুৎ লাইনে যদি কভার থাকতো আজ এত বড় দুর্ঘটনা ঘটতে পারত না। ভবন মালিকের উদাসীনতার কারণে বিদ্যুৎ লাইনে কভার না থাকার কারণে এ দুর্ঘটনা ঘটেছে। পাশের ভবনটি সুরক্ষিত। বিদ্যুৎ লাইনে কভার দেয়া হয়েছে বলে এলাকাবাসীরা জানিয়েছে। ভবন মালিক আব্দুল্লাহকে ফোন করা হলে তিনি বলেন, আমি থানায় অাছি তবে এ বিষয়ে আমি কিছুই জানিনা নাজিরহাট পৌর মেয়র এসএম সিরাজ দৌলাকে ফোন করা হলে তিনি বলেন, ঘটনাটি আমি শুনেছি। ভবন মালিক এবং মেয়ের পক্ষের লোকজন থানায় গিয়েছে। এব্যাপারে ফটিকছড়ি থানা ওসি বাবুল অাকতার বলেন। ঘটনাটি শুনেছি, বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মারা গেলেও মেয়ের পরিবার এর অাবেদনের প্রেক্ষিতে ময়নাদন্ত ছাড়াই লাশ দাফানের জন্য দেয়া হয়েছে।