প্রথম বৈদ্যুতিক গাড়ির ব্র্যান্ড চালু সৌদি আরবে

ছবি: সংগৃহীত
CPLUSTV
CTG NEWS
CPLUSTV
শেয়ার করুন

সিপ্লাস ডেস্ক: সৌদি আরবের যুবরাজ মোহম্মদ বিন সালমান বৃহস্পতিবার ‘সিয়ার’ নামের একটি বৈদ্যুতিক গাড়ির ব্র্যান্ড চালু করেছেন। আশা করা যাচ্ছে, এতে ১৫০ মিলিয়নেরও বেশি ডলার বিনিয়োগ করা হবে। এবং ৩০ হাজারেরও বেশি মানুষের কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি হবে।

সৌদি সংবাদ সংস্থা (এসপিএ) জানিয়েছে, কোম্পানিটি কার্বন নির্গমন কমাতে এবং জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব মোকাবেলা করতে সৌদি আরবের প্রচেষ্টায় অবদান রাখবে। আইফোন ‍উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান তাইওয়ানের প্রযুক্তি জায়ান্ট ফক্সকন এবং সৌদির পাবলিক ইনভেস্টমেন্ট ফান্ডের (পিএফআই) যৌথ উদ্যোগের ফলাফল হলো এই সিয়ার ব্রান্ড।

যুবরাজ সালমান বলেন, ‘সৌদি আরব শুধুমাত্র একটি নতুন স্বয়ংক্রিয় ব্রান্ড তৈরি করছে না। আমরা এক নতুন শিল্প এবং একটি বাস্তুতন্ত্র চালু করছি, যা স্থানীয় এবং আন্তর্জাতিক বিনিয়োগকে আকর্ষণ করবে, স্থানীয় মেধাবীদের কাজের সুযোগ তৈরি করবে, বেসরকারি খাতকে এগিয়ে নিবে এবং আগামী দশকে সৌদি আরবের জিডিপি বৃদ্ধিতে অবদান রাখবে। এছাড়াও ভিশন-২০৩০-এর সাথে সামঞ্জস্য রেখে অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি চালানোর ক্ষেত্রে পিআইএফ-এর কৌশলের অংশ হবে।

ফক্সকনের চেয়ারম্যান ইয়াং লিউ বলেছেন, ফক্সকন একটি নতুন স্বয়ংক্রিয় কোম্পানি তৈরি করতে তার পার্টনার পিআইএফ নিয়ে খুব আগ্রহী। কোম্পানিটি সৌদি আরবের জন্য বৈদ্যুতিক যানবাহন তৈরি এবং এর নকশার কাজে মনোনিবেশ করবে। আমরা বৈদ্যুতিক যানকে মূলধারায় রূপান্তর করতে চাই এবং সৌদি আরবের সিয়ার সে লক্ষ্যে পৌঁছাবে।

আশা করা যাচ্ছে, ২০২৫ সালের মধ্যে গাড়িগুলো বাজারে আসবে এবং কোম্পানিটি ২০৩৪ সালের জিডিপিতে আট বিলিয়ন ডলার অবদান রাখবে।

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তায়েব এরদোগান তুর্কিতে টগ নামের একটি বৈদ্যুতিক গাড়ি উৎপাদন কারখানা উদ্বোধনের কয়েকদিন পর সৌদি আরব এই পদক্ষেপ নেয়।

সূত্র : মিডল ইস্ট মনিটর