পেকুয়ায় প্রধানমন্ত্রীর দেয়া ঘরে এবার ঈদ করবে ৪০টি পরিবার

ছবি: সংগৃহীত
CPLUSTV
CTG NEWS
CPLUSTV
শেয়ার করুন

পেকুয়া  প্রতিনিধিঃ  প্রধানমন্ত্রীর উপহার দেয়া ঘরেই এবার ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করবেন পেকুয়ার ৪০ টি পরিবার।  উপহারের এই ঘরগুলো পুরোপুরি প্রস্তুত করার জন্য নির্ঘুম কাজ করছেন নির্মাণ শ্রমিকেরা। ইতিমধ্যেই বেশিরভাগ ঘরের কাজ সম্পন্ন হয়েছে বাকি কয়েকটির কাজ চলছে ।

জানা গেছে আগামী ২৬ এপ্রিল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঈদের উপহার হিসেবে সারাদেশে আশ্রয়ণ-২ প্রকল্পের আওতায় নির্মিত ৩২ হাজার ৯ শত ৪ টি ঘর আনুষ্ঠানিক  উদ্বোধন করবেন বলে কথা রয়েছে। এ প্রকল্পের অধীনেই পেকুয়ায় প্রস্তুত করা হয়েছে ৪০ টি ঘর। পেকুয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার পূর্বিতা চাকমা জানান, “পেকুয়ায় ইতিমধ্যে পেকুয়ার উপকারভোগী ৪০ পরিবারের জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর দেয়া ঘরগুলো পুরোপুরি প্রস্তুত করা হয়েছে। তাদের প্রত্যেকের নামে ২ শতক করে জমি রেজিষ্ট্রির কাজও সম্পন্ন হয়েছে।”

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, নির্মিত বাড়ীগুলোতে রয়েছে দুটি বেডরুম, একটি বারান্দা, সংযুক্ত বাথরুম ও রান্নাঘর। নিরাপদ পানির জন্য বসানো হয়েছে গভীর নলকূপ, দেয়া হয়েছে বিদ্যুত সংযোগ। কিছুদিন আগেও যারা ঝরাঝীর্ণ পলিথিন মুড়ানো ঘরে বসবাস করতো তারা এখন সেমিপাকা ঘর পেয়ে যেন খুশীতে আত্মহারা। প্রধানমন্ত্রীর দেয়া নতুন ঘরেই এবার খুশীর ঈদ করবেন তারা।

রাজাখালী সুন্দরী পাড়া এলাকার জেলে ফয়েজ আহমেদ, আবু সালেক ও রুপিয়া বেগম সহ বেশ কয়েকজন উপকারভোগী জানান, “এবারের ঈদটি আমাদের জীবনের একটি সেরা ঈদ হবে কেননা আমরা জীবনের এই প্রথম নিজেদের নতুন বাড়ীতে ঈদ করব। প্রধানমন্ত্রী আমাদেরকে ঘর দিয়েছেন। আমরা এখন পরিবার নিয়ে নিশ্চিন্তে সুখে শান্তিতে বসবাস করছি। আমরা প্রধানমন্ত্রীর নিকট কৃতজ্ঞ।”

টৈটং ইউপি চেয়ারম্যান জাহেদুল ইসলাম চৌধুরী বলেন, যারা সত্যিকার অর্থে ঘর পাওয়ার যোগ্য তারাই পেয়েছেন। এখানে নুন্যতম অনিয়ম আমি দেখিনি, ঘরগুলো আসলেই মজবুত।  তিনি এসব ঘর নির্মাণ কাজে যারা যুক্ত ছিলেন তাদের সকলকেই ধন্যবাদ জানান।