পেকুয়ায় বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষণের অভিযোগে আটক ১

CPLUSTV
CTG NEWS
CPLUSTV
শেয়ার করুন

পেকুয়ায় বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে এক যুবতীকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এতে ওই যুবতী অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়ে। এ ঘটনায় যুবতীর মা পেকুয়া থানায় মামলা দায়ের করেন।

পরে ধর্ষণে অভিযুক্ত মমতাজ মিয়াকে আটক করেছে পুলিশ।

রোববার (১৬সেপ্টেম্বর) দিবাগত রাত ৩টার দিকে সদর ইউনিয়নের ভোলাইয়্যা ঘোনা চরপাড়া এলাকার নিজ বাড়ি থেকে পেকুয়া থানার এসআই সুমন সরকার তাকে আটক করেন। মমতাজ মিয়া একই এলাকার দেলোয়ার হোসেনের ছেলে।

মামলার এজাহার সুত্রে জানা যায়, যুবতীর মা উল্লেখ করেন, মমতাজ মিয়া তার মেয়েকে বিয়ের প্রলোভন দিয়ে শারীরিক সম্পর্ক করে আসছিল। এতে তার মেয়ে ১মাসের অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়ে। পরে মমতাজ মিয়াকে বিয়ের প্রস্তাব দেয়া হয়। কিন্তু অস্বীকৃতি জানায় সে।

পেকুয়া থানার এসআই সুমন সরকার বলেন, যুবতীকে ধর্ষণের অভিযোগে মমতাজ মিয়াকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। ভিকটিমের মেডিকেল রিপোর্টের জন্য সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

পেকুয়া থানার ওসি কামরুল আজম বলেন, ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়ার সাথে সাথে ধর্ষক মমতাজ মিয়াকে গ্রেপ্তার করা হয়। সোমবার দুপুরে তাকে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।