পাহাড়তলীতে পিটুনিতে যুবক নিহত

CPLUSTV
CTG NEWS
CPLUSTV
শেয়ার করুন

নগরীর পাহাড়তলী থানার লঙ্কাপাড়ায় সোমবার রাতে এ ঘটনার পর এক নারীসহ দুজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

নিহত সুজন মল্লিক (২৯) পাহাড়তলী জেলে পাড়ার নির্মল মল্লিকের ছেলে।

এ ঘটনায় গ্রেপ্তার রুমি আক্তার (২৫) চট্টগ্রাম মহানগর হাকিম আদালতে মঙ্গলবার বিকালে জবানবন্দি দিয়েছেন। অন্য আসামি আব্দুল মালেককে কারাগারে পাঠানো হয়েছে বলে জানান পাহাড়তলী থানার ওসি মাইনুর রহমান।

তিনি বলেন, নিহত সুজনের বন্ধু ছিল একরাম হোসেন বাবু নামে আরেক যুবক। তারা এক সাথে মাদক সেবনের পাশাপাশি বিভিন্ন অপরাধমূলক কাজে জড়িত। সম্প্রতি তাদের মধ্যে মনোমালিন্য হয়। এ নিয়ে শুক্রবার সুজন লঙ্কাপাড়ায় গিয়ে একরামকে মারার হুমকি দিয়ে আসে।

“সোমবার রাত ১টার দিকে সুজন কিরিচ নিয়ে একরামের বাসার কাছে গিয়ে তাকে হাতে কুপিয়ে জখম করে। এসময় একরামের বাবা আব্দুল মালেক, স্ত্রী রুমি ও তাদের স্বজন আবু তাহের মিলে সুজনকে মারধর করে কিরিচ দিয়ে কুপিয়ে জখম করে। এতে সুজন মারা যায়।”

এ ঘটনায় সুজনের ছোট ভাই রনি মল্লিক বাদী হয়ে একরাম, তার বাবা মালেক, স্ত্রী রুমি ও স্বজন তাহেরের বিরুদ্ধে মামলা করেন।

ঘটনার পরপর অভিযান চালিয়ে পুলিশ মালেক ও রুমিকে গ্রেপ্তার করলেও একরাম এবং তাহের পালিয়ে যায় বলে ওসি মইনুর জানান।

তিনি বলেন, মঙ্গলবার বিকালে মহানগর হাকিম সরোয়ার জাহানের আদালতে রুমি জবানবন্দি দিয়েছেন।