নগরীতে পারিবারিক কলহের জেরে গৃহবধূ হত্যার অভিযোগ

CPLUSTV
CTG NEWS
CPLUSTV
শেয়ার করুন

নগরীতে পারিবারিক কলহের জেরে এক গৃহবধূকে নির্যাতন করে হত্যার অভিযোগ উঠেছে স্বামীর বিরুদ্ধে। নির্যাতিত গৃহবধূর নাম শারমিন আক্তার মিতু। সোমবার (৭ সেপ্টম্বর ) সন্ধ্যায় পাঁচলাইশ থানাধীন নাজির পাড়া মানিক ভিলার নিচতলায় এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় অভিযুক্ত স্বামী সোলায়মান হোসেন লিটনকে আটক করেছে পাঁচলাইশ থানা পুলিশ।

অভিযুক্ত সোলায়মান হোসেন লিটন নোয়াখালী জেলার উত্তর শুল্লিকা এলাকার চৌধুরী মিয়ার বাড়ীর কামাল উদ্দিনের ছেলে।

নিহত শারমিন আকতার মিতুর ভাবী নুসরাত জাহান তুলি জানিয়েছেন, শারমিন আক্তারকে প্রায়ই মারধর করতো স্বামী। আগেও এ বিষয়ে কয়েকবার বিচার হয়েছে। আমরা বারবার শারমিনকে এত নির্যাতনের পরেও সান্তনা দিয়েছি। কিন্তু হঠাৎ করে সোমবার লিটন আমাদের ফোন করে জানাই শারমিনকে মেডিকেলে আনার পর মারা গেছে।

তিনি আরও জানান, মেডিকেলে গিয়ে দেখতে পাই শারমিনের শরীরে বিভিন্ন জায়গায় আঘাতের চিহ্ন দেখা গেছে।

নিহতের মা জানান, বিয়ের পর থেকে অনেকবার নির্যাতনের শিকার হয়েছে মেয়ে। স্বামীকে নিয়ে সুখে থাকার জন্য অনেক কিছু দেওয়া হয়েছে। কিন্তু এরপরও নির্যাতন থেকে রেহাই পায়নি শারমিন।

এ ব্যাপারে সিএমপি’র অতিঃ উপ কমিশনার মিজানুর রহমান মুঠোফোনে সিপ্লাসকে জানিয়েছেন, প্রাথমিকভাবে মনে হচ্ছে পারিবারিক কলহের কারণে এ হত্যা। নিহত শারমিনের গলায় বিভিন্ন আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে। আসামীকে আটক করা হয়েছে। বিষয়টি হত্যা মামলা হিসেবে প্রক্রিয়াধিন।