নারায়ণগঞ্জে মিথ্যা ঘোষণা দিয়ে ক্যাসিনো সামগ্রী আমদানি

?????????????????????????????????????????????????????????
CPLUSTV
CTG NEWS
CPLUSTV
শেয়ার করুন

কোটি কোটি টাকার ক্যাসিনো মেশিন এখন পাওয়া যাচ্ছে পোল্ট্রি ফিড ইন্ডাস্ট্রিতে। শুধু তাই নয়, মোবাইল ফোন কারখানা ও ইজিবাইক ব্যাটারি প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠানেও পাওয়া যাচ্ছে ক্যাসিনো মেশিন। গত দুই দিনে ঢাকার বাইরে নারায়ণগঞ্জে ও মুন্সীগঞ্জে অভিযান চালিয়ে বেশ কয়েকটি ক্যাসিনো বোর্ড ও অন্যান্য সামগ্রী উদ্ধার করেছে কাস্টমস গোয়েন্দারা।

এনবিআরের কর্মকর্তারা বলছেন, মিথ্যা ঘোষণার মাধ্যমে শুল্ককর ফাঁকি দিয়ে বিভিন্ন ধরনের দামি ক্যাসিনো সামগ্রী আমদানি করা হয়েছে।

কাস্টমস গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদফতর বলছে, সোমবার (৩০ সেপ্টেম্বর) গোপন সংবাদের ভিত্তিতে কাস্টমস গোয়েন্দারা জানতে পারে হংকং ও ম্যাকাও এর ক্যাসিনোর বিখ্যাত গ্যাম্বলিং মেশিন- ‘মাহাজং’ আমদানি করে পোল্ট্রি ফিড ইন্ডাস্ট্রি ও ইজিবাইক ব্যাটারি প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠানে রাখা হয়েছে। এমন সংবাদের ভিত্তিতে দুপুর ১২ টায় কাস্টমস গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক মোহাম্মদ নেয়াজুর রহমান ও শামীমা আক্তারের নেতৃত্বে দুটি গোয়েন্দা দল মুন্সীগঞ্জের নিউ হোপ এগ্রোটেক বাংলাদেশ লিমিটেড থেকে দুটি এবং নারায়ণগঞ্জের ডংজিং লংজারভিটি ইন্ডাস্ট্রি লিমিটেড থেকে একটি ক্যাসিনো খেলার ইলেকট্রিক ‘মাহাজং ’ মেশিন উদ্ধার করা হয়।

প্রসঙ্গত, হংকং-ম্যাকাও’র ক্যাসিনোতে জুয়া খেলায় ‘মাহাজং’ বেশ পরিচিত। মূলত চারজন মিলে এটি খেলতে হয়। অনেকটা ক্যারম খেলার মতো। এই মেশিনের দাম প্রায় ৩০০ ডলার। এদিকে ক্যাসিনো মেশিন আমদানি করায় এ পর্যন্ত ২০ প্রতিষ্ঠানকে তলব করা হয়েছে। এরমধ্যে ১১টিই ‘মাহাজং’ নামে ক্যাসিনো বোর্ড আমদানি করেছে।

এ প্রসঙ্গে কাস্টমস গোয়েন্দারা বলছেন, ক্যাসিনো খেলার সামগ্রী তথা ‘মাহাজং’ মেশিন প্রতিষ্ঠানগুলোর উৎপাদিত পণ্যের সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ না হলেও তারা কেন এরূপ জুয়া খেলার মেশিন আমদানি করেছে, এ বিষয়ে তদন্ত করা হচ্ছে। তারা বলেন, বাংলাদেশে মাহাজং আমদানির বেশ কিছু পণ্য চালান কাস্টমস গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদফতর কর্তৃক শনাক্ত করা হয়েছে।

এর আগে রবিবার (২৯ সেপ্টেম্বর) নারায়ণগঞ্জে একটি মোবাইল ফোন কারখানা থেকে ‘মাহাজং’ নামের ক্যাসিনো বোর্ড ও অন্যান্য সামগ্রী জব্দ করে কাস্টমস গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদফতর। রবিবার গোপন সংবাদের ভিত্তিতে নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ এলাকার বেস্ট টাইকুন (বিডি) এন্টারপ্রাইজ লিমিটেড নামে একটি প্রতিষ্ঠানের ওয়্যারহাউসে অভিযান চালানো হয়। এ সময় ওয়্যারহাউস থেকে ‘মাহাজং’ নামের ক্যাসিনো বোর্ড ও অনান্য সামগ্রী জব্দ করা হয়। রবিবারের অভিযানেও নেতৃত্ব দেন কাস্টমস গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক শামীমা আক্তার।

তিনি বলেন, ‘হংকং ও ম্যাকাওয়ের ক্যাসিনোতে গ্যাম্বলিংয়ের (জুয়া) জন্য মাহাজংয়ের বহুল প্রচলন রয়েছে।

সূত্র জানায়, ক্যাসিনো মেশিন ও সামগ্রী আমদানি করেছে এমন ২০ প্রতিষ্ঠানের তথ্য পেয়েছে কাস্টমস গোয়েন্দা। এরইমধ্যে এসব প্রতিষ্ঠানকে তলবও করা হয়েছে। কিছু প্রতিষ্ঠানের শুনানি নেওয়া হয়েছে, কিছু প্রতিষ্ঠানের শুনানি চলমান রয়েছে।