দলীয় সভায় এনু-রুপনের বহিষ্কার নিয়ে হট্টগোল

CPLUSTV
CTG NEWS
CPLUSTV
শেয়ার করুন

অবৈধ ক্যাসিনো ব্যসসার মাধ্যমে বিপুল পরিমাণ ধন-সম্পদের মালিক হওয়া পুরান ঢাকার গেণ্ডারিয়া থানা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি এনামুল হক এনু ও যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রুপনের বহিষ্কার নিয়ে দলীয় সভায় আলোচনা হলেও কোনো সিদ্ধান্তে নেয়নি থানা আওয়ামী লীগ।

জানা গেছে, গেণ্ডারিয়া থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি শহীদুল্লাহ মিনুর আহ্বানে গত সোমবার থানা আওয়ামী লীগের জরুরি বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। এতে ক্যাসিনো ব্যাবসার জড়িত দুই ভাইয়ের বহিষ্কারের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়ার কথা ছিল। কিন্তু, সভায় দুই ভাইয়ের বহিষ্কাররের প্রস্তাব উঠলে তা হট্টগোলের মধ্য দিয়ে শেষ হয়। এমনকি, তাদের বহিষ্কারের বিষয়টি উঠলে দু’পক্ষের মধ্যে বৈঠকে হাতাহাতি ঘটনা ঘটে বলেও দলীয় সূত্র জানিয়েছে।

এনু-রুপন বিষয়ে গেণ্ডারিয়া থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি শহীদুল্লাহ মিনু গণমাধ্যমকে বলেন, তারা যদি দোষী প্রমাণিত হয়, আইনে তাদের শাস্তি হয় তবে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে। বৈঠকের হট্টগোলের বিষয়ে তিনি বলেন, হট্টগোল নয়, তাদের কমিটিতে আসা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছিল। তবে সদস্যপদ স্থগিত হবে কি সেটি প্রক্রিয়াধীন।

প্রসঙ্গত, গত সপ্তাহে পুরান ঢাকার সূত্রাপুরের বানিয়ানগরের বাসা ও বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে র‌্যাব ৫ কোটি টাকা ও ৮ কেজি স্বর্ণালংকার উদ্ধারের পর ৭টি মামলা হলেও দুই ভাই এনামুল হক ওরফে এনু ভূঁইয়া ও রুপন ভূঁইয়া এখনও অধরা।