তিস্তার এক মগও পানি আনতে পারেননি প্রধানমন্ত্রী: রিজভী

ছবি: সংগৃহীত
CPLUSTV
CTG NEWS
CPLUSTV
শেয়ার করুন

সিপ্লাস ডেস্ক: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভারত সফরে সীমান্ত হত্যা, তিস্তা পানির ন্যায্য হিস্যা নিয়ে এখন পর্যন্ত কথা বলেননি বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। তিনি বলেছেন, প্রধানমন্ত্রীর অন্য উদ্দেশ্য আছে। সে কারণে ন্যায্য হিস্যা ও দাবি আদায় করতে পারছেন না।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে রুহুল কবির রিজভী বলেন, সুষ্ঠু নির্বাচন ও জনগণের আস্থা নয়, এই সরকারের দরকার আন্তর্জাতিক প্রভুদের সমর্থন। তিনি বলেন, ‘সেই সমর্থনের আশায় তিনি (প্রধানমন্ত্রী) মরিয়া হয়ে উঠেছেন। তিনি ভারতে গেলেন। তিস্তার ন্যায্য হিস্যা নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে আলাপ-আলোচনা হচ্ছে। এই দেবে, ওই দেবে। প্রধানমন্ত্রী তো কিছুই করতে পারলেন না। এক বালতি কি, তিনি এক মগও পানি আনতে পারেননি। তাহলে কিসের সম্পর্ক।’

বাংলাদেশ-ভারত সীমান্ত পৃথিবীর সবচেয়ে রক্তাক্ত সীমান্ত দাবি করে প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশে রুহুল কবির রিজভী বলেন, সীমান্তে আপনার লোকদের প্রতিনিয়ত পাখির মতো গুলি করে মারছে। আপনি তো সেটা নিয়েও প্রতিবাদ করলেন না।

রুহুল কবির রিজভী বলেন, বর্তমান সরকার সব প্রতিষ্ঠান ধ্বংস করে দিয়েছে। তিনি বলেন, ‘পুলিশ কর্মকর্তা আওয়ামী লীগের স্টাইলে বক্তৃতা দেন। পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) আমেরিকায় বক্তৃতা করছেন, মনে হচ্ছে আওয়ামী লীগের ওবায়দুল কাদের, হাছান মাহমুদ, নাহলে মাহবুব উল আলম হানিফ বক্তৃতা করছেন।

ঠিক তাঁদের কণ্ঠ, তাঁদের ভাষা, তাঁদের শব্দ ব্যবহার করে আইজিপি বক্তব্য দিয়েছেন।’
বিএনপির কর্মসূচিতে হামলার বিষয়ে রুহুল কবির রিজভী বলেন, সারা দেশে পুলিশ ও আওয়ামী লীগের নেতা–কর্মীদের মার খেয়ে বিএনপির নেতা–কর্মীরা এখন বিভিন্ন হাসপাতালে চিৎকার করছেন।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন শহীদ জিয়া আইনজীবী পরিষদের সভাপতি আবু ইউসুফ সরকার, সঞ্চালনা করেন পরিষদের সুপ্রিম কোর্ট ইউনিটের সভাপতি টিপু সুলতান ও সহসাংগঠনিক সম্পাদক ওমর ফারুক। এ সময় বক্তব্য দেন বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব মাহবুব উদ্দিন খোকন, ঢাকা বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুস সালাম আজাদ প্রমুখ।