‘তামাক নিয়ন্ত্রণ আইন সংশোধনের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে’

ছবি: সংগৃহীত
CPLUSTV
CTG NEWS
CPLUSTV
শেয়ার করুন

সিপ্লাস ডেস্ক: সরকার ‘ধূমপান ও তামাকজাত দ্রব্য ব্যবহার (নিয়ন্ত্রণ) আইন-২০০৫’ সংশোধনের উদ্যোগ নিয়েছে বলে জানিয়েছেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক।

রোববার (২২ মে) রাজধানীর সিরডাপ (এশিয়া ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের সমন্বিত পল্লী উন্নয়ন কেন্দ্র) মিলনায়তনে আয়োজিত এক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা জানান তিনি।

অনুষ্ঠানে মন্ত্রী বলেন, তামাকদ্রব্য ব্যবহারের ক্ষতিকর দিক বিবেচনা করে তামাকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণে বর্তমান সরকার ২০১৩ সালে তামাক নিয়ন্ত্রণ আইনের বেশ কিছু ধারা সংশোধন করে। এছাড়া ২০১৫ সালে তামাক নিয়ন্ত্রণ বিধিমালা প্রণয়ন করা হয়।

এ সময় তামাকদ্রব্য ব্যবহারের ক্ষতিকর দিকগুলো নতুন প্রজন্মের সামনে বেশি বেশি করে তুলে ধরতে গণমাধ্যমকর্মীদের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

সেমিনারে তামাক নিয়ন্ত্রণ আইন সময়োপযোগীকরণে সকল প্রকার পাবলিক প্লেস ও গণপরিবহনে ধূমপান সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ করাসহ বেশ কিছু ধারা সংশোধনের প্রস্তাব করা হয়।

এ সময় মন্ত্রী জানান, সরকার এরই মধ্যে এ আইন সময়োপযোগী করতে আরও বেশ কিছু ধারা সংশোধনের উদ্যোগ নিয়েছে ।

এদিন সিরডাপ মিলনায়তনে ডেভেলপমেন্ট অরগানাইজেশন অব দ্য রুরাল পুওর (ডরপ) আয়োজিত ‘তামাক নিয়ন্ত্রণ আইন সময়োপযোগীকরণে নীতি-নির্ধারকদের কাছে প্রত্যাশা’ শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়।

এতে উপস্থিত ছিলেন তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. মকবুল হোসেন, স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব ও জাতীয় তামাক নিয়ন্ত্রণ সেলের সমন্বয়কারী হোসেন আলী খোন্দকার, বাংলাদেশের লিড পলিসি অ্যাডভাইজার ও বাংলাদেশ কেমিক্যাল ইন্ডাস্ট্রিজ কর্পোরেশনের (বিসিআইসি) সাবেক চেয়ারম্যান মোস্তাফিজুর রহমানসহ জনস্বাস্থ্য সুরক্ষা বিষয়ক বিভিন্ন সংগঠনের নেতারা। সেমিনারে সভাপতিত্ব করেন ডরপ-এর চেয়ারম্যান মো. আজহার আলী তালুকদার।